৫ মের কথা ভুলে গেছেন? আপনাকে সেই সৃতি স্মরণ করে দিতে চাই- বাবুনগরীকে তাপস

বাংলাদেশকে কোনো অপশ’ক্তির দখলে যেতে দেওয়া হবে না বলে ভাস্কর্য ভাঙ’চুরকারীদের ‘হুঁ’শিয়ারি দিয়েছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস।

তিনি বলেন, জনাব বাবুনগরী, আপনাকে স্মরণ করে দিতে চাই সেই ৫ মের কথা। ভুলে গেছেন? মনে করেছিলেন, শাপলা চত্বর দখল করলেই বাংলাদেশ দখল হয়ে যাবে। জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমরা

যত দিন জীবিত আছি এই বাংলাদেশকে কোনো অপশ’ক্তি দখল করতে পারবে না। বুধবার (৯ ডিসেম্বর) দুপুরে বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদের ব্যানারে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য স্থাপনে মৌলবাদীদের বাধা ও ভাঙ’চুরের প্রতিবাদে সুপ্রিম কোর্টের মূল গেটের সামনে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে এসব কথা বলেন সংগঠনটির সদস্যসচিব শেখ ফজলে নূর তাপস। মেয়র তাপস বলেন, বঙ্গবন্ধুর বি’রুদ্ধে অপশক্তির এ আ’ক্র’মণ আজ নতুন নয়। ১৯৭৫ সালে জাতির পিতাকে সপরিবারে হ”ত্যার মাধ্যমে তারা মনে করেছিল যে,

বাংলার বুক থেকে বঙ্গবন্ধু নিশ্চিহ্ন হয়ে যাবেন। কিন্তু তা হয়নি। কারণ বঙ্গবন্ধু মানেই বাংলাদেশ। বঙ্গবন্ধু একটি চেতনা, একটি আদর্শ, যেটি বাঙালি জাতির অন্তরে গেঁথে আছে। কোনোভাবেই সেটা মুছে দেওয়া যাবে না। নিশ্চিহ্ন করা যাবে না। ব্যারিস্টার তাপস বলেন, ভাস্কর্য ভে’ঙে তারা মনে করেছে তারা বিজয়ী হয়েছে। যখনই সংবিধানবি’রোধী কার্যক্রম হয়েছে, যখনই গণতন্ত্রকে আ’ক্রম’ণ করা হয়েছে, যখন মুক্তিযু’দ্ধের চেতনায় আঘাত এসেছে আমরা আইনজীবী অঙ্গন তার দাঁতভা’ঙা জবাব সবসময় দিয়েছি।

এখনও আমরা প্রস্তুত দাঁতভা’ঙা জবাব দেওয়ার জন্য। তিনি বলেন, আমরা শান্তিপ্রিয়, আমরা সুন্দরভাবে দেশকে এগিয়ে নিয়ে চলার জাতি গঠনে নিয়োজিত আছি। কিন্তু তার মানে এই না যে, আপনারা (বাবুনগরী) পানি ঘোলা করে জাতির পিতার প্রতি কটূক্তি করে, মনে করছেন আবার জ’ঙ্গিবাদের দিকে দেশকে নিয়ে যাবেন। তাপস আরও বলেন, আবারও সেই বাংলাভাই সৃষ্টি করবেন, সেই যুদ্ধাপরাধীদের আরেকবার আপনারা আসন গ্রহণ করাবেন। সেই সুযোগ আর ইনশাআল্লাহ বাংলার মাটিতে আমরা হতে দেব না।

জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে যেভাবে আমরা যু’দ্ধাপরাধীদের বিচার সম্পন্ন করেছি যেভাবে বাংলার বুক থেকে আমরা চিরতরে জঙ্গিবাদ নির্মূল করেছি, ইনশাআল্লাহ শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলার বুক থেকে সব মৌলবাদ নির্মূল হবে। না হলে আপনারা যে স্লোগান একসময় দিয়েছিলেন, বাংলা হবে আফগান; সেই আফগানিস্তানে আপনাদের পাঠিয়ে দেওয়া হবে। মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বারের সাবেক সম্পাদক ও বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের মানবাধিকারবিষয়ক চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট মো. মোখলেসুর রহমান বাদল, অ্যাটর্নি জেনারেল ও সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি এএম আমিন উদ্দিন, সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি

ও বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন, সাবেক সভাপতি ও বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট আব্দুল বাসেত মজুমদার, সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সাবেক সম্পাদক ও অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল এসএম মনির, অ্যাডভোকেট লায়েকুজ্জামান মোল্লা, সাবেক সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট সানজিদা খানম, সাবেক সম্পাদক ড. বশির আহমেদ প্রমুখ।

Check Also

তরুণীকে তুলে নিয়ে মৃত প্রেমিকের সঙ্গে বিয়ে!

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বর্ধমানে এক তরুণীকে জোর করে তুলে নিয়ে সিঁদুর পরিয়ে মৃ’ত প্রেমিকের সঙ্গে বিয়ে …