স্ত্রী’র মৃ’ত্যুর খবর শুনে মা’রা গেলেন স্বামীও

অ’সুস্থ হয়ে হাসপাতা’লে ভর্তি ছিলেন নাদিয়া আক্তার কলি (২০)। ওই অ’সুস্থতায় না ফেরার দেশে চলে যান তিনি। এ খবর পৌঁছে স্বামী মোস্তফা আকনের (২৭) কাছে। শুনেই মৃ’ত্যুর কোলে ঢলে পড়েন তিনি।

বৃহস্পতিবার (১৪ জানুয়ারি) সকালে পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতা’লে এ ঘটনা ঘটে।

মা’রা যাওয়া দম্পতি গলাচিপা উপজে’লার আমখোলা ইউনিয়নের দক্ষিণ-পশ্চিম বাঁশবুনিয়া গ্রামের বাসিন্দা।

পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতা’লের জরুরি বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, মৃ’ত নাদিয়া সকাল ৭টা ৫০ মিনিটে হাসপাতা’লে গুরুতর অ’সুস্থ অবস্থায় গাইনি ওয়ার্ডে ভর্তি হন। ৮টা ১০ মিনিটে তিনি মা’রা যান। এর আগে ৬ জানুয়ারি শহরের মায়ো ক্লিনিকে সিজারিয়ান অ’পারেশনের মাধ্যমে পুত্রসন্তানের জন্ম দেন নাদিয়া।

নি’হতের স্বজন সাদ্দাম হোসেন বলেন, বুধবার (১৩ জানুয়ারি) রাতে স্ত্রী’ নাদিয়া আক্তার কলি অ’সুস্থ হলে তাকে পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতা’লে ভর্তি করা হয়। বৃহস্পতিবার সকালে স্বামী মোস্তফা আকন স্ত্রী’র জন্য হাসপাতা’লের সামনের দোকানে ওষুধ কিনতে যান। মোবাইলে স্ত্রী’র মৃ’ত্যুর খবর শুনে তিনিও মৃ’ত্যুর কোলে ঢলে পড়েন।

পারিবারিক সূত্র জানায়, ছয় বছর আগে মোস্তফা আকনের সঙ্গে পটুয়াখালী জে’লা শহরের টাউন কালিকাপুর এলাকায় মৃ’ত মকবুল হোসেনের মে’য়ে নাদিয়া আক্তার কলির বিয়ে হয়। মোস্তফা শহরের ফজিলাতুননেছা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটে খণ্ডকালীন ইংরেজি শিক্ষক হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন।
বিকেলে জানাজা শেষে দম্পতিকে গ্রামের বাড়িতে দাফন করার কথা রয়েছে।

Check Also

প্রথম সন্তান কন্যা হওয়ায় গৃহবধূকে তাড়িয়ে দিলো স্বামীর পরিবার

এক বছরের সংসার জীবনে ছেলে সন্তান উপহার দিতে পারেনি। তাই গাইবান্ধার সাদুল্লাপুরে রোকসানা খাতুন (২৩) …