সেন্টমা’র্টিনে প্রসব সেবা না পেয়ে গর্ভবতী মায়ের মৃ’ত্যু.

কক্সবাজারে টেকনাফে মূল ভূখণ্ড হতে বিচ্ছিন্ন জনপদ সেন্টমা’র্টিনে প্রসব চিকিৎসা সেবা না থাকায় এক গর্ভবতী মায়ের মৃ’ত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার সকাল ৮টায় আব্দুল শুক্কুরের স্ত্রী’ কুলসুমা’র (২২) প্রসব যন্ত্র’ণা শুরু হলে সাগর পথে টেকনাফ নেওয়ার পথে তিনি মা’রা যান

জানা যায়, ৮ ডিসেম্বর (মঙ্গলবার) সকাল ৭টার দিকে প্রবাল দ্বীপ সেন্টমা’র্টিনের গুচ্ছগ্রামের আব্দুল শুক্কুরের স্ত্রী’ কুলসুমা’র (২২) প্রসব যন্ত্র’ণা শুরু হলে ডেলিভা’রির জন্য সাগর পথে টেকনাফ নেওয়ার পথেই নৌযানে মৃ’ত্যুবরণ করেন। চিকিত্সা সেবা বঞ্চিত অ’পমৃ’ত্যুর ঘটনায় দ্বীপবাসীর মনে চরম ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

স্থানীয় জনসাধারণের অ’ভিযোগ, এই দ্বীপে একটি অ’ত্যাধুনিক মানের হাসপাতাল থাকলেও পর্যাপ্ত চিকিৎসা সেবা সহ’জে মেলেনা। এছাড়া ডেলিভা’রির জন্য প্রাতিষ্ঠানিক প্রসব সেবা ইউনিট না থাকায় এই দ্বীপের মানুষকে সাগর পাড়ি দিয়ে টেকনাফ যেতে হয়। এই আসা-যাওয়ার পথেই অনেক মাকে অকালেই প্রা’ণ হারাতে হয়। তাই এই দ্বীপে পর্যট’ক ও স্থানীয় বাসিন্দাদের যাবতীয় চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করার জন্য হাসপাতা’লের যাবতীয় কার্যক্রমের পাশাপাশি ডেলিভা’রি ইউনিট চালুর দাবি জানিয়েছেন।

এই বিষয়ে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান নুর আহম’দ জানান, এই দ্বীপের বাসিন্দাদের সরকারী স্বাস্থ্য সেবার জন্য হাসপাতাল এবং ডাক্তার থাকলেও সেবার মান অ’প্রতুল। এছাড়া ডেলিভা’রি ইউনিট না থাকায় প্রায় সময় গর্ভবতী মায়েদের অ’পমৃ’ত্যুর ঘটনা ঘটছে। তা দ্রুত সমাধানের জন্য সরকারের ঊর্ধ্বতন মহলের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

টেকনাফ উপজে’লা নির্বাহী অফিসার মো. সাইফুল ইস’লাম জানান, এই ঘটনাটি আম’রা অবগত হয়েছি। বিষয়টি ঊর্ধ্বতন মহলকে অবহিত করা হয়েছে। শীঘ্রই এই দ্বীপে ডেলিভা’রি সেবাসহ যাবতীয় স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করার পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

উল্লেখ্য, প্রতিবছরই শাহ পরীরদ্বীপ এবং সেন্টমা’র্টিনের গর্ভবতী মায়েরা প্রসব সেবা না পেয়ে অকালে মৃ’ত্যুবরণ করছে। তাই গর্ভবতী মায়েদের নিরাপদ প্রসব সেবা নিশ্চিত করার জন্য ডেলিভা’রি ইউনিট চালুর দাবি উঠেছে।

Check Also

প্রথম সন্তান কন্যা হওয়ায় গৃহবধূকে তাড়িয়ে দিলো স্বামীর পরিবার

এক বছরের সংসার জীবনে ছেলে সন্তান উপহার দিতে পারেনি। তাই গাইবান্ধার সাদুল্লাপুরে রোকসানা খাতুন (২৩) …