সংবিধান থেকে ‘রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম’ বাতিলের দাবিতে মা’নববন্ধ’ন

ডেস্ক- ভাস্কর্য ও মূর্তিবি’রোধী অবস্থানের কারণে হেফাজতে ইসলামের আমির মাওলানা জুনাইদ বাবুনগরী এবং যুগ্ম মহাস’চিব মাওলানা মামুনুল হকের গ্রে’প্তার দাবিতে ঢাকার সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে মা’নববন্ধ’নে অংশ নিয়েছে সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও পেশাজীবীদের কথিত ৬০টি সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

মা’নববন্ধ’ন থেকে অবিলম্বে সংবিধান থেকে ‘রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম’ বাতিল করে বাহাত্তরের ‘অসা’ম্প্রদায়িক’ সংবিধানে ফিরে যাওয়ার দাবি জানানো হয়।

মঙ্গলবার ঘা’তক দালাল নির্মূ’ল কমিটির উদ্যোগে দুপুর আড়াইটা থেকে মৎস ভবন থেকে শুরু করে ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন, ঢাকা ক্লাব, শাহবাগ মোড় ও সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের ছবির হাট পর্যন্ত এই মা’নববন্ধ’ন কর্মসূচি শুরু হয়। কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন স’রকারের মুক্তিযু’দ্ধ বি’ষয়ক মন্ত্রী এ কে এম মোজাম্মেল হক, যুবলীগ সভাপতি শেখ ফজলে শামসও।

একাত্তরের ঘা’তক দালাল নির্মূ’ল কমিটির সভাপতি শাহরিয়ার কবির, সাংবাদিক আবেদ খান, ইতিহাসের অধ্যাপক, গবেষক মুনতাসীর মামুন, বাংলাদেশ গ্রাম থিয়েটারের সভাপতি সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব নাসিরউদ্দিন ইউসুফ বাচ্চু, সম্মি’লিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি গোলাম কুদ্দুছ, সেক্টর কমান্ডারস ফোরামের মহাস’চিব বীর মুক্তিযোদ্ধা হারুন হাবীব, বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক রানা দাশগু’প্ত এ কর্মসূচিতে যোগ দিয়েছেন।

এই কর্মসূচির মূ’ল দাবি- অবিলম্বে হেফাজতে ইসলামের আমীর মাওলানা জুনাইদ বাবুনগরী, যুগ্ম মহাস’চিব মাওলানা মামুনুল হককে গ্রে’প্তার এবং জামায়াত-হেফাজতের ‘মৌলবা’দী’ ও ‘সা’ম্প্রদায়িক’, ‘স’ন্ত্রাসী রাজনীতি’ নি’ষিদ্ধ করা।

মা’নববন্ধ’নে সম্মি’লিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি গোলাম কুদ্দুছ বলেন, ‘আমরা মনে করি, ভাস্কর্যের স’ঙ্গে ধর্মের কোনও বি’রোধ নেই। কাজেই যারা বাংলাদেশে ভাস্কর্যের স’ঙ্গে ধর্মের সাংঘর্ষিক অবস্থান তৈরি করছে, এটা রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। আমরা দেশে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি তৈরি করার এবং অসা’ম্প্রদায়িক চেতনাকে ভূলুণ্ঠিত করার সব ষ’ড়যন্ত্রের বি’রুদ্ধে দেশবাসীকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানাচ্ছি।’

মৌলবা’দী সা’ম্প্রদায়িক অপগোষ্ঠীগুলোর যে ধৃষ্টতা দেখছি, তা একদিনে তৈরি হয়নি উল্লেখ করে বাংলাদেশ উদীচী শিল্পীগোষ্ঠীর সহ-সাধারণ সম্পাদক স’ঙ্গীতা ইমাম বলেন, অবিলম্বে সংবিধান থেকে ‘রাষ্ট্রধর্ম’ বাতিল করে বাহাত্তরের অসা’ম্প্রদায়িক সংবিধানে ফিরে যেতে হবে। মৌলবাদের জুজুর ভ’য়ে রাষ্ট্রের প্রশ্রয়-আপসের অবসান ঘটাতে হবে।

সামাজিক-সাংস্কৃতিক শ’ক্তির দু’র্বলতার সুযোগ নিয়ে মৌলবা’দী শ’ক্তি মাথাচাড়া দিয়ে উঠে এখন প্রগতিশীলতার বি’রুদ্ধে হুঙ্কার দিচ্ছে বলে মন্তব্য করেন বাংলাদেশ গ্রাম থিয়েটারের সভাপতি সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব নাসিরউদ্দিন ইউসুফ বাচ্চু্। তিনি বলেন, জাতির পিতার ভাস্কর্য ভে’ঙে নদীতে ছুঁড়ে ফেলার মতো বক্তব্য দেওয়ার ধৃষ্টতা তারা দেখিয়েছে। তারা কারা ? তারা হচ্ছে একাত্তরের পরাজিত সৈনিক, একাত্তরের পরাজিত শ’ত্রু, তাদেরই উত্তরসূরি, একেবারেই তাদের প্রতীকী রূপ।

Check Also

প্রধানমন্ত্রীর কাছে খালেদা জিয়ার আবেদন

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার দু’র্নী’তির দায়ে দ’ণ্ডি’ত সা’জা স্থগিত করে মু’ক্তির মেয়াদ পূর্বের শর্তে …