শ্রাবন্তীর পথেই হাঁটছেন নুসরাত!

সম্প্রতি রাজস্থান ঘুরতে গিয়েছিলেন তিনি। সঙ্গে ছিলেন অভিনেতা যশ। আজমীর শরীফেও গিয়েছিলেন এ অভিনেতাকে নিয়ে। এক ভিডিওতে নুসরাত জানিয়েছেন, বাবার আর্শীবাদ নিতেই দরগায় গিয়েছিলেন তিনি।

সে ভিডিও ছড়িয়ে পড়লে যশের সঙ্গে প্রেমের গুঞ্জন শক্ত হয় নুসরাতের। এ বিষয়ে শুরু থেকেই মুখে কুলুপ এঁটেছেন নুসরাত। স্পষ্ট করে বলছেন না কিছুই। ভারতীয় গনমাধ্যমে তিনি জানান, তার ব্যক্তিগত জীবনে কোনো সম্পর্ক আছে না নেই, তা নিয়ে মুখ খুলতে চান না। মানুষ কেন সব সময় তার ব্যক্তিগত জীবন এবং সম্পর্ক নিয়ে বিভিন্ন ধরনের মন্তব্য করেন, তা বুঝতে পারেন না।

নুসরাত-যশের প্রেমের বিষয়টি জানেন তাদের ঘনিষ্ঠজনরা। কিন্তু এ ব্যাপারে মুখ একদম বারণ। ওদিকে, একে অপরকে ইনস্টাগ্রাম থেকে ‘আনফলো’ করে দিয়েছেন। টলিপাড়ার এ চুপি আলোচনা ওঠে এসেছে সর্বভারতী একটি গণমাধ্যমে। আনফলো করে দেওয়ার স্ক্রিনশট নিয়ে তুমুল জল্পনা শুরু হয়েছে নেট দুনিয়ায়। নেটিজেনরা মনে করছেন- শ্রাবন্তীর পথে হাঁটছেন নুসরাত।

নুসরাত-নিখিলের সর্ম্পকের পারদ মাপার জন্য ৮ জানুয়ারির (শুক্রবার) অপেক্ষায় ছিলেন ভক্তরা। ওইদিন ছিল নুসরাতের জন্মদিন। গুঞ্জনের সত্যতা পাওয়া গেছে এদিন। জন্মদিনে স্ত্রী নুসরাতকে শুভেচ্ছা পাঠাননি নিখিল। এতেই জোরদার তাদের সংসার ভাঙার জল্পনা। ওদিকে নুসরাতের ইনস্টাগ্রাম ঘুরে, যশের সঙ্গেই একাধিক ছবি দেখা গেছে। আর স্বামী নিখিলের সঙ্গে সবশেষ ছবি শেয়ার করেছেন গেল বছর ১৯ জুন। ২০২০ সালের ১৬ নভেম্বর নুসরাতের সঙ্গে একটি পারিবারিক ছবি শেয়ার করেছেন নিখিল। দিওয়ালির শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ওই ছবি দিয়ে। তারপর নিখিলের ইনস্টাগ্রামে তেমন কোনো ছবি দেখা যায়নি।

নিউ নরমাল পরিস্থিতিতে ‘এসওএস কলকাতা’ সিনেমার চিত্রায়ণ করতে গিয়ে যশের সঙ্গে সখ্যতা হয় নুসরাতের। তারপর বিভিন্ন অনুষ্ঠান এবং পার্টিতে একসঙ্গে দেখা গিয়েছিল তাদের। ২০১৯ সালে নিখিল জৈনের সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হয়েছিলেন নুসরাত। দাম্পত্যজীবন ভালোই যাচ্ছে নুসরাতের। স্বামী-সংসার, ক্যামেরার সামনের কাজ, রাজনৈতিক কাজ-সব সমান তালে সামলাচ্ছেন এই অভিনেত্রী। নুসরাত কি শ্রাবন্তীর পথে হাঁটছেন? এ প্রশ্নের উত্তর জানতে নেটিজেনদের অপেক্ষা করতে হবে আরও কিছুদিন।

২০১১ সালে অভিনয়ে ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন নুসরাত। জিতের বিপরীত ‘শত্রু’ সিনেমায় প্রথমবার অভিনয় করেছিলেন তিনি। তারপর অভিনয় করেছেন একাধিক ব্যবসা সফল সিনেমায়। ক্যারিয়ারে তুঙে থাকা অবস্থায় ব্যবসায়ী নিখিল জৈনের সঙ্গে বিয়ের পিঁড়িতে বসেছিলেন নুসরাত। তিনি তৃণমূল কংগ্রেসের হয়ে বসিরহাট লোকসভা কেন্দ্রের সাংসদ নির্বাচিত হন।

Check Also

বাড়ি তৈরির কাজ প্রসঙ্গে সংবাদে বিব্রত সানাই

‘আমার বাবা একটি বেসরকারি ব্যাংকের সাবেক উপমহাব্যবস্থাপক (ডিজিএম)। তার নিজস্ব অর্থায়নে রংপুরে আমাদের পৈতৃক সম্পত্তিতে …