রাতের আঁধারে বাসরঘর ছেড়ে পালালেন বর-কনে!

রাতের আঁধারে আয়োজন করে যখন চলছিল বাল্যবিয়ে, ঠিক তখনই খবর পেয়ে বিয়েবাড়িতে রাতেই ছুটে যান ইউএনও। ইউএনওর উপস্থিতি বুঝতে পেরে বাসরঘর থেকে দৌড়ে পালিয়ে যান নবদম্পতি ও বিয়েবাড়ির লোকজন। ঘটনাটি ঘটেছে নাটোরের গুরুদাসপুর উপজেলার নাজিরপুর ইউনিয়নের মামুতপুর গ্রামে।

শনিবার (৫ ডিসেম্বর) রাত ৮টার দিকে ওই এলাকায় বাল্যবিয়ে বন্ধে অভিযান পরিচালনা করেন গুরুদাসপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. তমাল হোসেন।

ইউএনও তমাল হোসেন জানান, মামুতপুর গ্রামের মো. তছের সরকারের বাড়িতে তার ছেলে ইনামুল সরকারের (২৫) সঙ্গে পার্শ্ববর্তী এলাকা দুধগাড়ী গ্রামের মো. আনোয়ার হোসেনের অষ্টম শ্রেণিতে পড়ুয়া মেয়ে নূপুরের (১৫) বাল্যবিবাহের খবর পাওয়ার পর ঘটনাস্থলে যাওয়া হয়। বিয়েবাড়ির লোকজন আমাদের উপস্থিতি বুঝতে পেরে বর-কনেসহ সবাই দৌড়ে পালিয়ে যায়।

ঘটনাস্থলেই বিয়ে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে এবং পরবর্তীতে উভয়পক্ষের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। বাল্যবিয়ে বন্ধে উপজেলা প্রশাসনের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

Check Also

প্রথম সন্তান কন্যা হওয়ায় গৃহবধূকে তাড়িয়ে দিলো স্বামীর পরিবার

এক বছরের সংসার জীবনে ছেলে সন্তান উপহার দিতে পারেনি। তাই গাইবান্ধার সাদুল্লাপুরে রোকসানা খাতুন (২৩) …