মুলতানি মাটির এই ১০টি ফেস প্যাক রূপচর্চায় করবে বাজিমাত!

রূপচর্চায় ব্যবহৃত হয়ে আসা অতি প্রাচীন একটি উপাদান হল মুলতানি মাটি। এটি ত্বকের জন্য খুব উপকারি একটি উপাদান। কারণ এতে আছে মিনারেলস যা ত্বককে ভেতর থেকে পরিষ্কার করতে বেশ কার্যকরী।

ত্বককে ভেতর থেকে উজ্জ্বল করতে, টানটান করতে এবং ত্বকের অন্যান্য যেকোনো সমস্যায় কাজ করতে এই মাটির জুড়ি মেলা ভার। বিশেষত ব্রণর সমস্যার একটি দারুন সমাধান হল মুলতানি মাটি। খুব সহজেই মুলতানি মাটির ফেস প্যাক বানানো যায়।

১. মুলতানি মাটি ও গোলাপজল
তৈলাক্ত ত্বকের জন্য, একটু মুলতানি মাটি আর দুচামচ গোলাপজল ভালো করে মিশিয়ে পেস্ট বানান। তারপর সেটি মুখে লাগিয়ে রাখুন ১৫ মিনিট। এবার এটি শুকিয়ে গেলে পরিষ্কার জলে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে দু থেকে তিন দিন করতে পারেন। এতে অতিরিক্ত অয়েল কন্ট্রোল হবে।

২. মুলতানি মাটি চন্দন ও দুধ
একচামচ মুলতানি মাটি, একচামচ চন্দন পাউডার ও একচামচ কাঁচা দুধ ভালো করে মিশিয়ে পেস্ট বানান। তারপর সেই পেস্টটি মুখে লাগিয়ে রাখুন ১৫ থেকে ২০ মিনিট। তারপর ধুয়ে ফেলুন। এটি সপ্তাহে দু বার করতে পারেন। ভালো ফলের জন্য। এটিও অয়েল ফ্রি স্কিন পেতে সাহায্য করবে। এই ফেস প্যাক আপনার ত্বককে পরিস্কার ও উজ্জ্বল করতে সাহায্য করবে।

৩. মুলতানি মাটি, মধু ও পাকা পেঁপে
একচামচ মুলতানি মাটি, একচামচ মধু ও একচামচ পাকা পেঁপের পেস্ট বানান। তারপর মুখ আগে পরিষ্কার করে তারপর এটি লাগান। এবং শুকিয়ে গেলে ধুয়ে নিন। এটি ত্বককে ভেতর থেকে উজ্জ্বল করবে।

৪. মুলতানি মাটি, শসা ও গোলাপজল
ত্বককে তরতাজা বানাতে, কয়েকটি শসার টুকরো, দুচামচ মুলতানি মাটি ও একচামচ গোলাপজল ভালো করে মিশিয়ে ঘন পেস্ট বানান। তারপর সেটি মুখে লাগিয়ে রাখুন ১৫ থেকে ২০ মিনিট। তারপর ঠাণ্ডা জলে পরিষ্কার করে ফেলুন। এটি একটি তরতাজা লুক দিতে সাহায্য করবে।

৫. মুলতানি মাটি, আঙুর ও মধু
ইনস্ট্যান্ট গ্লো দরকার? তাহলে কয়েকটি আঙুর বাটা, তার সঙ্গে একচামচ মধু ও একচামচ মুলতানি মাটি মিশিয়ে পেস্ট বানান। তারপর সেটি লাগিয়ে রাখুন ১৫ থেকে ২০ মিনিট মত। তারপর সেটি পরিষ্কার করে ফেলুন ঠাণ্ডা জলে। এটি ইনস্ট্যান্ট পার্লারের মত ফেসিয়াল গ্লো দেবে।

৬. মুলতানি মাটি ও লেবু
একচামচ মুলতানি মাটি, ও একচামচ লেবুর রস আর একচামচ মধু মিশিয়ে পেস্ট বানান। তারপর সেটি মুখে লাগিয়ে রাখুন ২০ থেকে ২৫ মিনিট। এটি ত্বকের যেকোনো দাগ দূর করতে সক্ষম। বিশেষত ব্রনর দাগ যেতেই চায় না। এক্ষেত্রে এই প্যাকটি খুবই কার্যকরী।

৭. মুলতানি মাটি, গাজর ও অলিভ তেল
গাজর ত্বকের পিগমেনটেশন রোধে বিশেষ ভূমিকা নেয়। আর এর সঙ্গে মুলতানি মাটি যোগ হলে তো কোন কথাই নেই।এর জন্য আগে গাজরের পেস্ট বানিয়ে নিন। তারপর গাজরের পেস্টের সঙ্গে মুলতানি মাটি, ও অলিভ তেল ভালো করে মিশিয়ে প্যাক বানান। এবার এটি লাগিয়ে রাখুন ১৫ মিনিট মত। তারপর ধুয়ে ফেলুন। এটি ত্বকের পিগমেনটেশন রোধে বিশেষ সাহায্য করে। ভালো ফল পাবার জন্য এটি সপ্তাহে দুবার করুন।

৮. মুলতানি মাটি ও ডাবের জল
ডাবের জল ট্যান সমস্যায় বিশেষ কার্যকরী। আর এর সঙ্গে মুলতানি মাটি ত্বককে ঠাণ্ডা রাখতে বেশ ভালো কাজ করে। তাই একচামচ মুলতানি মাটি, একচামচ ডাবের জল ও একটু চিনি ভালো করে মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করুন। তারপর সেটি ট্যান পরে যাওয়া জায়গায় লাগিয়ে রাখুন ১৫ থেকে ২০ মিনিট। এটি সপ্তাহে দুবার করুন। ট্যান আর থাকবে না।

৯. মুলতানি মাটি, পুদিনা ও দই
ত্বকে ডার্ক প্যাচেস সত্যি খুব খারাপ লাগে। আর এই সমস্যায় ব্যবহার করুন মুলতানি মাটি, পুদিনা ও দই এর প্যাক। একচামচ মুলতানি মাটি, একচামচ দই ও কয়েকটি পুদিনা পাতা দিয়ে ভালো করে পেস্ট বানান। তারপর সেটি লাগিয়ে রাখুন ২০ মিনিট। তারপর হালকা গরম জলে মুখ পরিষ্কার করে নিন। উপকার পাবেন।

১০. মুলতানি মাটি ও মধু
প্রাণহীন ত্বক? ব্যবহার করে দেখতে পারেন এই প্যাক। এর জন্য দুচামচ মুলতানি মাটি, একচামচ মধু, একচামচ লেবুর রস, একচামচ টম্যাটোর রস ও একটু কাঁচা দুধ ভালো করে মিশিয়ে পেস্ট বানান। তারপর সেটি মুখে লাগিয়ে রাখুন ১০ মিনিট।

Check Also

বিনা খরচে আজীবনের জন্য এলার্জিকে বিদায় জানান

মানবজীবনে এলার্জি কতোটা ভয়ঙ্কর তা যিনি ভুক্তভোগী শুধু তিনিই জানেন। এর উপশমের জন্য কতোজন কতো …