‘মিস্টার বচ্চ’নকে শেষ’বারের মত দেখে আসুন’, চিকিৎসকে’র কথা শু’নে কেঁ’দে ভা’সা’লেন জয়া বচ্চন

বলি’উডের অন্য’তম সফল জু’টি অমিতাভ-জয়া। রু’পোলি পর্দার এই হিট জু’টির বাস্তব জীব’নে’র ইনিংস’টা কিন্তু ব্লকবাস্টার হিট।অ’মিতাভ-জয়া সুখী গৃ’হকো’ণ সত্যি অবা’ক করে অনে’ককে।

কিন্তু এবার আই’সিসিউ’র বাই’রে দাঁড়ি’য়ে অমিতা’ভের জন্য কে’নও কাঁদ’ছে জয়া? হঠাৎ কি হ’লো বিগ বি-র! ১৯৭৩ সা’লের ৩-রা জুন বিয়ে’র পর্ব সে’ছিলে’ন বিগ বি ও জয়া। ক’ক ঘন্টা’য় বিয়ে সেরে চট জ’লদি রা’তের ফ্লা’ইটে’ই লন্ডন রওনা দেন। সিলসি’লা, অ’ভিমান,চু’প’কে চু’প’কে,মি’লির মতো অজ’স্র ছবিতে জুটি বেঁ’ধে’ছেন অমি’তাভ ও জয়া।

দুই সন্তান-শ্বেতা,অ’ভিষেক এবং জা’মাই,বৌমা,নাতি,নাতনি নিয়ে ভরপুর সংসার তাঁদের। কিন্তু মুম্ব’ইয়ের ব্রিজ ক্যান্ডি হাস’পাতা’লের আ’ইসিউ’য়ের বাইরে জয়া’কে চি’কিৎস’করা বলছেন ‘যান, মিস্টার বচ্চ’নকে শে’বা’রের মত দেখে আসুন’। এই কথা শুনেই অঝো’রে কাঁ’দ’ছেন অ’মিতাভ প’ত্নী? ন’তুন করে আ’বার কি হলো তার?

আস’লে এটা এখ’নের ঘটনা নয়। সালটা ১৯৮২ সালের ২৬ জুলাই ম’নমো’হন দেশা’ইয়ের ছবি ‘কুলি’-র শ্যুটিং করতে ফি’য়ে গু’রুতর চোট পেয়েছিলেন অমি’তাভ বচ্চন সেই সময়কার ঘটনা। সেই ঘটনা’র ক’থা তুলে ধরে নি’জের ব্লগে বিগ বি ‘লেখেন, ‘ ১৯৮২ সালের ২ আগস্ট ব্রিজ ক্যান্ডি হাসপা’তা’লে আমি তখন জীবন আর মৃ*ত্যু*র মাঝে দোদুল্যমান।

দ্বি’তীয় অ’পা’রেশ’নে’র পর একটা লম্বা স’ম’য়ের জন্য আমি অজ্ঞা’ন ছিলা’ম। জ’য়াকে আই’সিসিউ-তে যেতে বলা হয়, শেষবা’রে’র মত স্বা’মীকে দে’খার জন্য। কিন্তু সেই সময় ডঃ উদও’য়াদি’য়া একটা শেষ চেষ্টা ক’রেছিলেন, আর তা’তেই মি’রাকল হয়ে’ছিল! তিনি এ’কের পর এক ‘ক’রটি’সোন ই’ঞ্জেকশন দিতে থাকেন, আর তা’রপর’ই আ’মা’র পা-টা কেঁপে ওঠে। জয়াই প্রথম সেটা ল’ক্ষ্য করে, ও চেঁচিয়ে ওঠে, দেখ ও বেঁচে আ’ছে।

বলে রাখি, কুলি’ ছবির শুটিং’য়ের সময় বে’ঙ্গালুরু বিশ্ব’বি’লয় চ’ত্বরে সহ-অ’ভি’নেতা পু’নিত ই’সারের স’ঙ্গে মা’রামা’রির একটি দৃশ্যে অ’ভিন’য়ের সময় পড়ে গি’য়ে তল’পেটে গু’রুত’র চোট পান অমি’তাভ। প্রথ’মে আ’ঘা’তের গুরুত্ব বো’ঝা না গেলেও দ্বি’তীয় দিন থেকে পেটে অ’সহ্য যন্ত্র’ণা শুরু হয়। ক্রমেই প’রিস্থিতি জ’টিল হয়ে যায়।

কয়ে’ক মুহূর্তে’র জন্য তাঁর হৃ’দ’স্পন্দ’ন বন্ধ হয়ে গিয়ে’ছিল বলেও চিকিৎসকরা জানি’য়েছিলেন। ডা’ক্তারি পরিভাষায় যাকে বলে ‘ক্লিনিক্যালি ডেথ’। সংকট’জ’নক অব’স্থাতেই তাঁকে বি’শেষ বিমানে উড়ি’য়ে আনা হয় মুম্ব’ইয়ে। অ’সু’খকে ‘হা’রাতে জানেন অ’মিতা’ভ। তাই আজও সুস্থ বিগ বি। বর্তমা’নে ক’রোনা’কে হারিয়ে দিব্যি সুস্থ হয়ে গি’য়ে’ছেন অ’ভি’নেতা।

Check Also

বাড়ি তৈরির কাজ প্রসঙ্গে সংবাদে বিব্রত সানাই

‘আমার বাবা একটি বেসরকারি ব্যাংকের সাবেক উপমহাব্যবস্থাপক (ডিজিএম)। তার নিজস্ব অর্থায়নে রংপুরে আমাদের পৈতৃক সম্পত্তিতে …