মালিবাগে কাজের মেয়ের ভয়ানক কাণ্ড, সিসিটিভি ফুটেজ দেখে অবাক সবাই

রাজধানীর মালিবাগে ফাঁকা বাসায় সত্তরোর্ধ্ব এক বৃদ্ধা বর্বর নির্যাতনের শিকার হয়েছেন বাসার গৃহকর্মীর হাতে। পরে নগদ টাকা-পয়সা এবং স্বর্ণালঙ্কার নিয়ে পালিয়ে যায় ওই গৃহকর্মী।

সোমবার (১৮ জানুয়ারি) সকালে এ ঘটনা ঘটে। পরে বাসার সিসি ক্যামেরার ফুটেজ থেকে বিস্তারিত জানা যায়।

ভিডিও ফুটেজে দেখা যায়, বছর তিনকে ধরে কিডনীর সমস্যাসহ নানা শারীরিক জটিলতায় ভোগা বিলকিস বেগম নামে ওই বৃদ্ধা শুয়ে আছেন বিছানায়। পাশে পরম যত্নে তার সেবা করছেন রেখা নামের এক গৃহকর্মী। শুরুতে বুঝার উপায় নাই, একটু পরে কি ঘটতে যাচ্ছে।

পরম মমতার পেছনে যে কত ভয়ংকর পরিকল্পনা লুকিয়ে ছিলো তার বহিঃপ্রকাশ কিছুক্ষণ পরেই দেখা যায়।

ভিডিও ফুটেজে কিছুক্ষণ পরই দেখা যায়, জোর করে বিলকিস বেগমকে বাথরুমে ঢোকাচ্ছে রেখা। এরই মাঝে খুলে ফেলা হয়েছে তার শরীরের সব কাপড়। শীতের সকালে বৃদ্ধার গায়ে ইচ্ছেমতো ঢালা হয় ঠাণ্ডা পানি। কিন্তু ভেতরে গৃহকত্রীকে আটকাতে না পেরে বেরিয়ে আসে রেখার আসল চেহারা। যে লাঠি বৃদ্ধ বয়সে ছিলো ভরসা, তা দিয়েই শুরু হয় বেদম প্রহার। মার খেয়ে ফ্লোরে পড়ে গেলেও ক্ষান্ত হননি রেখা। এরপরও একের পর এক আঘাত করা হয় মাথায়।

এক পর্যায়ে হাতের কাছে যা পেয়েছে তা দিয়েই চালিয়েছে নির্যাতন। আলমারির চাবির জন্য বুকে উপর চেপে বসে। বটি হাতেও তেড়ে আসেন রেখা। এসব কিছুর মাঝে তার লক্ষ্য আলমারি। এক সময় অসহায়ের মতো আত্মসমর্পণ করেন বিলকিস বেগম। তার গলা থেকে স্বর্ণের চেইন খুলে নিজের গলা পরেন। আয়েশি ভঙ্গিতে পরখ করে নেন হাতের বালা।

তারপর চাবির সন্ধান পায় নিষ্ঠুর এই গৃহকর্মী। কিন্তু খুলতে না পেরে রক্তাক্ত, অসুস্থ বৃদ্ধাকে টেনে নিয়ে বাধ্য করেন আলমারি খুলে দিতে। ড্রয়ার খুলে স্বর্ণ, নগদ টাকা, মোবাইল সবই হস্তগত করে রেখা।

পুরোটা সময় বিবস্ত্র বৃদ্ধা, নিজের হাতেই রক্ত থামাতে মাথায় বাঁধেন কাপড়। সব হাতানোর পর কক্ষে তালা দেয় রেখা। তারপর খুলে আনে টিভি। জোগাড় করে ব্যাগ। সবকিছু গুছিয়ে ফাঁকা বাসায় আহত বৃদ্ধাকে ফেলে বেরিয়ে যায় গৃহকর্মী।

মালিবাগের ওই বাসাটিতে স্বামী মৃত্যুর পর দুই ছেলে ও তিন মেয়ের মধ্যে দুজনকে নিয়ে এতদিন নিরাপদেই বসবাস করে আসছিলেন বিলকিস বেগম।

বৃদ্ধার মেয়ে মেহবুবা জানান, মাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বাসা ফাঁকা রেখে ভাইয়েরা ঢাকার বাইরে যাওয়ায় গৃহকর্মী এমন সুযোগ পেয়েছে। পরে মঙ্গলবার (১৯ জানুয়ারি) শাহজাহানপুর থানায় অভিযোগ জানান তিনি।

এ বিষয়ে শাহজাহানপুর থানা পুলিশ গণমাধ্যমকে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানায়, গৃহকর্মীদের নামে ছদ্মবেশে পেশাদার অপরাধীরা ঢুকে যাচ্ছে মানুষের বাসাবাড়িতে। বাসাবাড়িতে গৃহকর্মীদের কাজ দেওয়ার আগে তাদের বিষয়ে ভালোভাবে খোঁজ নেওয়ার জন্য সতর্ক করেন।

Check Also

যে কারণে ইমামের সঙ্গে প;রকীয়া করেন আসমা!

ঢাকার দক্ষিণখানের সরদারবাড়ি জামে মসজিদের ইমাম মাওলানা আবদুর রহমানের (৫৪) সঙ্গে পরকীয়ায় জড়িয়েছিলেন নিহত আজহারের …