মাটির নিচে কয়েক বস্তা টাকা!

কক্সবাজারে সাম্প্রতিককালের সবচেয়ে বড় ইয়াবা চালান আজ মঙ্গলবার বিকেলে আটক করেছে পুলিশ। কক্সবাজার জেলা পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগের একটি টিম ছদ্মবেশে কক্সবাজার সদর উপজেলার চৌফলদণ্ডী নৌঘাট এলাকা থেকে একটি ফিশিং ট্রলারভর্তি এই ইয়াবার চালানটি জব্দ করে।

পুলিশ এ সময় দুই ইয়াবা কারবারিকে আটক করে। জব্দ করা ইয়াবার পরিমাণ ১৪ লাখ পিস। কক্সবাজার জেলায় এটি সবচেয়ে বড় ইয়াবার চালান আটকের ঘটনা বলে জানিয়েছে পুলিশ। কক্সবাজারের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ হাসানুজ্জামানের নেতৃত্বে অভিযান পরিচালিত হয়।

এদিকে আটককৃত ফারুকের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী তার বাড়ি এবং পার্শ্ববর্তী এলাকায় তল্লাশি চালায় পুলিশ। এ সময় বাড়ির পার্শ্ববর্তী এলাকায় মাটি খুঁড়ে পুলিশ কয়েক বস্তা টাকা উদ্ধার করেছে।

কক্সবাজারের পুলিশ সুপার হাসানুজ্জামান জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ খবর পায়, মিয়ানমার থেকে সমুদ্রপথে ইয়াবার একটা বড় চালান সদর উপজেলার চৌফলদণ্ডী ব্রিজের কাছে নৌঘাটে এসে ভিড়বে। জেলা পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগের টিম শ্রমিকের ছদ্মবেশে ঘাটে অবস্থান নেয়।

ফিশিং ট্রলারটি ঘাটে এলেই পুলিশ অভিযান শুরু করে এবং ইয়াবাসহ ট্রলারটি জব্দ করে। এ সময় দুই ইয়াবা কারবারিকে আটক করতে সক্ষম হয় পুলিশ। পুলিশের কয়েকটি দলের সমন্বয়ে চালানো এই অভিযানে এই ট্রলার থেকে ইয়াবাভর্তি সাতটি বস্তা উদ্ধার করা হয়। সর্বমোট ১৪ লাখ ইয়াবা আছে বলে জানান পুলিশ সুপার।

পুলিশ সুপার বলেন, এই চালানের সঙ্গে একটি চক্র জড়িত। চক্রের অন্য সদস্যদের ব্যাপারে খোঁজ নেওয়া হচ্ছে।

Check Also

অন্তরঙ্গ মুহূর্তের ছবি দেখিয়ে ২৮ জনকে বিয়ে করেন অভিনেত্রী রোমানা!

নায়িকা রোমানা স্বর্ণাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ফাঁদ পেতে এক সৌদি প্রবাসীর কাছ থেকে কোটি টাকারও …