বিয়ে করে বহিষ্কার ‘চিরকুমার সংঘের’ নেতা

চিরকুমার সংঘের নেতাকে বহিষ্কার করা হয়েছে বিয়ে করার ‘অভিযোগে’। এমন ঘটনা ঘটেছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের চিরকুমার সংঘের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মিনারুল ইসলাম মিনারের সঙ্গে। সম্প্রতি সংগঠনটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, রাবি চিরকুমার সংঘের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. মিনারুল ইসলাম মিনারকে সংগঠনের শৃঙ্খলা ভঙ্গের দায়ে ৭-(ক) ধারা মোতাবেক সংঘ থেকে আজীবনের জন্য বহিষ্কার করা হল। সে চিরকুমার সংঘের পদ ধারণ করেও কেন বিবাহ করল তা অতি শিগগিরই লিখিতভাবে দেয়ার অনুরোধ করছি।

চিরকুমার সংঘের সভাপতি আহমেদ রাফি বলেন, চিরকুমার সংগঠনের সদস্যরা তাদের বৈশিষ্ট্য রক্ষায় সর্বদা তৎপর। কিন্তু সংগঠনের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদকের মতো গুরুত্বপূর্ণ পদে থেকে মিনার এমন কাজ করবে এটা হতাশাজনক। সে কীভাবে সংগঠনের মূলমন্ত্র থেকে দূরে সরে গেল; এটা দুঃখজনক। সংগঠনের নিয়ম ভঙ্গ করার অভিযোগে তাকে সংগঠন থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

২০১২ সালে গড়ে উঠে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় চিরকুমার সংঘ। এছাড়া বর্তমানে প্রেমের বিরুদ্ধে বিভিন্ন কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে বিভিন্ন নামে সংগঠন গড়ে উঠেছে। এসব সংগঠনের নেতা-কর্মীদের মূলত ১৪ ফেব্রুয়ারি কিংবা প্রেম-ভালোবাসা সম্পর্কিত বিষয়গুলো সামনে আসলে আলোচনায় দেখা যায়। তারা এসব দিনে মিছিল বের করে।

Check Also

প্রধানমন্ত্রীর কাছে খালেদা জিয়ার আবেদন

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার দু’র্নী’তির দায়ে দ’ণ্ডি’ত সা’জা স্থগিত করে মু’ক্তির মেয়াদ পূর্বের শর্তে …