বিয়েবাড়ি খুঁজে না পেয়ে খালি হাতে ফিরল বরযাত্রী, বউ না পেয়ে হতাশ বর

কনেবাড়ির ঠিকানা খুঁজে খুঁজে হয়রান বরযাত্রীরা। অবশেষে ক্লান্ত হয়ে বিয়ে না করেই বাড়ি ফিরে গেলেন তারা। জানা গেছে, কনের আত্মীয়রা যে ঠিকানা দিয়েছিল তার অস্তিত্বই নেই। আদৌ কি কনে আছে কিনা তাও জানা নেই কারো।

এমনই এক ঘটনা ঘটেছে ভারতের উত্তর প্রদেশের মাউ এলাকায়। চলতি মাসের ১০ তারিখ এই ঘটনা ঘটেছে। বরযাত্রীদের অভিযোগ, তথাকথিত কনে বিয়ের গোছগাছের কথা বলে তাদের কাছ থেকে ২০ হাজার টাকা হাতিয়ে নেয় আগেই। এমনকি যে ঠিকানা দিয়েছে তার কোনো অস্তিত্বই নেই।

এদিকে শীতের রাতে বন্ধুবান্ধব নিয়ে শোভাযাত্রা করে আজমগড় থেকে মাউ এসেছিলেন হবু বর। তারপর শহরজুড়ে কনের বাড়ি খুঁজলেন বরযাত্রীরা। তবে এমন কোনো ঠিকানাই খুঁজে পাননি তারা। অবশেষে উপায় না দেখে বউ ছাড়াই আজমগড় ফিরে আসেন বর।

বরের বাড়ি আজমগড়ের কোতয়ালি এলাকার কাঁসিরাম কলোনিতে। যে ঘটক বিয়ের সম্বন্ধ এনেছিলেন তাকে শনিবার সারারাত আটকে রাখেন বরযাত্রীরা। পুলিশের কাছেও খবর যায়। তবে বোকামি করেছে বরপক্ষ, কারণ তারা বিয়ের আগে কনের বাড়ি যায়নি। এমনকি কোনো খোঁজও নেয়নি।

জানা গেছে, বরের নাকি ৪ বছর আগেও একবার বিয়ে হয়েছিল বিহারের সমস্তিপুরে। তবে বউ বেশিদিন তার সঙ্গে থাকেননি। বিয়ের কয়েক মাস পর বৌ বাপের বাড়ি চলে যায়। এরপর পাত্রের বাড়ির লোক তার আবার বিয়ে দেয়ার জন্য পাত্রী দেখতে শুরু করেন। তারপরই এই আশ্চর্যজনক ঘটনাটি ঘটে।

Check Also

প্রথম সন্তান কন্যা হওয়ায় গৃহবধূকে তাড়িয়ে দিলো স্বামীর পরিবার

এক বছরের সংসার জীবনে ছেলে সন্তান উপহার দিতে পারেনি। তাই গাইবান্ধার সাদুল্লাপুরে রোকসানা খাতুন (২৩) …