ব’উয়ের এ’কটা আ’ইডিয়া ব’দলে দিল ও মান প্র’বাসীর ভাগ্য, এবার হলেন কো’টিপতি !

ক’থায় ব’লে, প্রত্যেক সফল পুরু’ষের নেপথ্যে থাকেন এক জ’ন ম’হিলা। ক’থাটা যে কতখানি সত্যি তার জ্বলন্ত উদাহরণ ই’ন্দোরের জৈন দ’ম্পতি। স্ত্রী নীতির প’রাম’র্শে আজ তাঁর স্বা’মী গগন কোটি টাকার মালিক। অবশ্য শুধু প’রাম’র্শ নয়, স্বা’মীর সাফল্যের নেপথ্যে রয়েছে নীতির প’রিশ্রম এবং প্র’তিভাও।

আর সাফল্য এ’কা গগনেরই নয়, তার ভাগীদার নীতিও। তাঁদের ভাগ্যের উড়ানের সূচনা ওমা’নের মা’স্কট শহরে। এক স’ময়ে ক’র্মসূত্রে সেখানেই থাকতেন গগন আর নীতি। স্ত্রী-কে নিয়ে একটি ফ্যাশান ব্র্যান্ডের হয়ে সেখানে চাকরি ক’রতে গিয়েছিলেন গগন। স্বা’মী অ’ফিসে বেরিয়ে গেলে এ’কা লাগত নীতির।

কী ভাবে স’ময় কা’টাবেন ভেবে পেতেন না। নীতির আঁকার হাত ছিল চমৎকার। হ’ঠাৎই তাঁর মনে হল, ছবি এঁকে দুপুরবেলাগুলো কা’টালে কেমন হয়। কিন্তু ছবি আঁকবেন কীসের উপ’র? ক্যানভাসে? নীতি বেছে নিলেন অ’ভিনব ক্যানভাস। স্বা’মীর শার্টগুলোর উপ’রেই চা’লাতে লাগলেন রং-তুলি।

ক’ল্পনায় থাকা রংবেরং-এর নক্সাগুলো ফুটিয়ে তুলতে লাগলেন গগনের শার্টে।গগন দেখলেন, তাঁর শার্টে অসা’ধা’রণ ডিজাই’ন ক’রেছেন স্ত্রী। সেই শার্ট প’রেই অ’ফিস যাওয়া শুরু করলেন তিনি। গগন হয়তো ভাবতেও পারেননি, তাঁর স্ত্রীয়ের ডিজাই’ন করা শার্টগুলো তাঁর প্রত্যেক স’হক’র্মী র দৃষ্টি আক’র্ষণ করবে।

শুধু তা-ই নয়, ক’লিগরা খোঁ’জ নেওয়া শুরু করলেন, কোত্থেকে এমন চমৎকার শার্ট কিনেছেন গগন গগন যখন জা’নালেন, তাঁর স্ত্রী ডিজাই’ন ক’রেছেন শার্টগুলো, তখন স’হক’র্মী রা এরকম শার্ট কেনার ইচ্ছে প্র’কাশ করলেন। সেই থেকেই বি’জ’নেস আ’ইডিয়া এলো নীতির মাথায়।

তিনি ভাব’লেন, কেমন হয় যদি দু’জ’নে মি’লে নীতির ডিজাই’ন করা শার্ট ব্যবসায়িক ভিত্তিতে উৎপাদন এবং বিক্রি শুরু করেন। যেমন ভাবা তেমনি কাজ। ইতিমধ্যে মা’স্কট ছেড়ে ই’নদৌরে চ’লে এসেছিলেন দু’জ’নে। সেখানেই ‘রংরেজ’ নামে স্টার্টআ’প শুরু করলেন গগন-নীতি। সাফল্য পেতে ‘রংরেজ’-এর বেশি স’ময় লাগেনি।

আজ রংরেজ-এর তৈরি করা শার্টে’র সুনাম দেশে-বিদেশে ছড়িয়ে পড়েছে। শুধু ই’নদৌর নয়, যোধপুরেও খোলা হয়েছে কোম্পানির নতুন সেন্টার। শার্টে’র পাশাপাশি আজ গগন-নীতির স্টার্টআ’প হ্যান্ডিক্রাফ্ট, বালিশ, বেডসিট এবং ই’ন্টিরিয়র ডেকরেটিং আ’ইটেমও তৈরি করেন।

২০০ জ’নের মতো ক’র্মী কাজ করেন গগন-নীতির অধীনে।নীতি তাঁদের কাজক’র্ম তত্ত্বাবধান করেন, হা’তে ধ’রে কাজ শেখান। আর শার্ট এবং অন্যান্য দ্রব্যের ডিজাই’ন যে তিনি নিজে হা’তেই করেন, তা তো বলাই বাহুল্য। উৎপাদিত দ্রব্যের বি’পণনের যাবতীয় দায়িত্ব সামলান গগন।

১৫ লক্ষ টাকার পুঁজি নিয়ে স্টার্টআ’প শুরু করেছিলেন নীতি আর গগন। আজ তাঁদের কোম্পানির মা’সিক রোজগার দু’কোটি টাকা ছাড়িয়ে গিয়েছে। নীতির প্র’তিভা এবং আ’ইডিয়া বদলে দিয়েছে দু’জ’নের জীবন।

Check Also

ধেয়ে আসছে বিশালাকার গ্রহাণু

একটি বিশালাকার গ্রহাণু ধেয়ে আসছে পৃথিবীর দিকে। আন্তর্জাতিক মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা জানিয়েছে, এটি পৃথিবীর …