পাঁচ সন্তান জীবিত থাকা সত্ত্বেও সম্পত্তি লিখে দিলেন পোষা কুকুরের নামে!

যাকে বলে ভরা সংসার। চার মে’য়ে ও এক ছে’লে, স্ত্রী’ আর এক পোষা কুকুর। সংসারে সব আছে, নেই শুধু শান্তি। মধ্যপ্রদেশের চিণ্ডওয়ারা জে’লার জে’লার চৌরায়ি মহকুমা’র বাদিওয়াড়া গ্রামের বাসিন্দা বছর ৫০ এর ওম নারায়ণ বর্মা’র সংসারে প্রায়ই লেগে থাকে অশান্তি। সব অশান্তির মূলে নারায়ণ বর্মা’র সম্পত্তি। নেহাত কম সম্পত্তি নয়, ২১ একর জমি সহ আরও অনেক কিছু।

এই সম্পত্তির ভাগাভাগি নিয়েই সন্তানদের সঙ্গে তাঁর অহরহ অশান্তি চলতেই থাকে। শেষ পর্যন্ত এই অশান্তির আঁচ থেকে বাঁচতেই, চরম সিদ্ধান্ত নিয়ে নিলেন ওম নারায়ণ বর্মা। বাড়ির পোষা কুকুরের নামে লিখে দেন সম্পত্তির অর্ধেক অংশ। পেশায় চাষি ওই ব্যক্তির এহেন কী’র্তি সম্প্রতি প্রকাশ্যে এসেছে। যা জানতে পেরে, রীতিমতো অ’বাক স্থানীয় বাসিন্দারা।

ওম নারায়ন-এর দুই বিয়ে। প্রথম স্ত্রী’র তরফ থেকে তিন কন্যা এবং এক ছে’লে রয়েছে তাঁর। অন্যদিকে, দ্বিতীয় স্ত্রী’র পক্ষ থেকে রয়েছে দুই কন্যা। এছাড়া রয়েছে ১১ মাসের একটি পোষ্য কুকুর। যার নাম জ্যাকি। সম্প্রতি নিজের শেষ উইলটি করেন ওই ব্যক্তি। তাতেই তিনি নিজের সমস্ত সম্পত্তি দ্বিতীয় স্ত্রী’ চ’ম্পা বাঈ এবং কুকুর জ্যাকির নামে লিখে দেন।

তিনি জানিয়েছেন যে, তাঁর সঙ্গে সন্তানদের কারোর ভালো স’ম্পর্ক নেই এই সম্পত্তির কারণেই। তাই তিনি সম্পত্তির অর্ধেক অংশ লিখে দিয়েছেন নিজের স্ত্রী’র নামে। আর বাকি অর্ধেক অংশ লিখে দিয়েছেন তাঁর পোষা কুকুর জ্যাকির নামে। নারায়ণ বর্মা’র মৃ’ত্যুর পর, তাঁরাই সেই সম্পত্তির অধিকারী হবেন। অন্যদিকে যে জ্যাকির দেখাশোনা করবে সেই ওই সম্পত্তি পাবে। জ্যাকির মৃ’ত্যুর পর জ্যাকির সম্পত্তি তাঁরই হবে।

এই ঘটনা প্রকাশ্যে আসতেই সোশ্যাল মিডিয়ায় অনেকেই প্রশ্ন তুলছেন যে, ছে’লে-মে’য়ের থেকে কি তাহলে কুকুরই বেশি বিশ্বস্ত! কুকুরকেই বেশি ভালোবাসেন ওই ব্যক্তি! তাঁদের আরও প্রশ্ন, ছে’লে মে’য়ে ভালো না হলে, ওম নারায়ণ বর্মা’র অবর্তমানে বা এখনও ওই কুকুরটির সঙ্গে তাঁরা খা’রাপ ব্যবহার করতে পারে। সেক্ষেত্রে কী’ হবে?

Check Also

তরুণীকে তুলে নিয়ে মৃত প্রেমিকের সঙ্গে বিয়ে!

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বর্ধমানে এক তরুণীকে জোর করে তুলে নিয়ে সিঁদুর পরিয়ে মৃ’ত প্রেমিকের সঙ্গে বিয়ে …