নামাজরত মা’কে হ’ত্যা’র দা’য়ে ছেলে’র মৃ’ত্যু’দ’ণ্ড!

কুড়িগ্রামে নামাজরত অবস্থায় মাকে কু’ড়াল দিয়ে কু’পিয়ে হ’ত্যা’র দা’য়ে ছেলে মন্তাজুল আলমকে (৩৬) মৃ’ত্যু’দ’ণ্ড দিয়েছেন আ’দা’লত।

মঙ্গলবার (১২ জানুয়ারি) দুপুর ১টার দিকে এ রায় দেন জেলা ও দায়রা জজ আব্দুল মান্নান। এ সময় আ’সামি মন্তাজুল আলম আ’দা’লতে উ’পস্থিত ছিলেন।

আ’দা’লত ও মা’ম’লার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, মন্তাজুল আলমের প্রথম স্ত্রী তাকে ছেড়ে চলে যাওয়ার পর মা’ন’সিকভাবে তিনি কিছুটা অসু’স্থ হয়ে পড়ে। এ অবস্থায় মন্তাজুল দ্বিতীয় বিয়ে করার জন্য উ”দগ্রী’ব হয়ে উঠলে তার বাবা-মা তাতে অ’স’ম্মতি জানায়।

এতে ক্ষি’প্ত হয়ে গত বছরের ২০ মার্চ দুপুর পৌনে ২টার দিকে ঘরের ভিতর জোহরের নামাজরত অবস্থায় মা মেহেরজান বেগমকে (৫৮) মন্তাজুল আলম কু’ড়া’ল দিয়ে কো’প দেয়। এতে ঘ’ট’নাস্থ’ল তার মৃ’ত্যু ঘটে। এ সময় চিৎ’কার শুনে প্র’তিবেশীরা ঘ’টনাস্থ’লে এসে মন্তাজুলকে আ’ট’ক করে পুলিশে সো’পর্দ করে।

এ ঘ’ট’না’কে কেন্দ্র করে ওই দিন বিকেলে বাবা সোলায়মান আলী (৬৪) বা’দী হয়ে মন্তাজুল আলমকে আ’সা’মি করে রাজারহাট থানায় হ’ত্যা মা’ম’লা দা’য়ের করেন।

সূত্র আরও জানায়, মা’ম’লার ১৯ জন সাক্ষীর মধ্যে ১৭ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ করা হয়েছে। রাষ্ট্রপক্ষে পাবলিক প্রসিকিউটর এসএম আব্রাহাম লিংকন এবং আ’সা’মি পক্ষে লি’গ্যাল এ’ইড নি’য়োজিত আ’ইনজীবী এটিএম এরশাদুল হক চৌধুরী শাহীন মা’ম’লাটি পরিচালনা করেন।

Check Also

বাস স্ট্যান্ডের পাশে পড়েছিল বস্তাভর্তি টাকা

নাটোরের বড়াইগ্রামে বনপাড়া বাজারে পাবনা বাস স্ট্যান্ডের পাশে পরিত্যক্ত অবস্থায় একটি টাকার বস্তা পাওয়া গেছে। …