নতুন নিয়ম চালুঃ বাসা-বাড়িতে ‘কাজের লোক’ নিলে থা’নায় জানাতে হবে

এখন থেকে রাজধানীর বাসা-বাড়িতে কাজের বুয়া, মালি, দারোয়ান বা অন্য কোনো কাজে নতুন লোক নিয়োগ করা হলে তাদের তথ্য থা’নায় জানাতে হবে। সচেতনতা ও নিরাপত্তার স্বার্থে এটি কার্যকর করা হবে বলে জানিয়েছেন ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পু’লিশের অ’তিরিক্ত কমিশনার এ কে এম হাফিজ আক্তার।

তিনি বলেন, এ নিয়ম কার্যকর হলে ঢাকা শহরে বাড়িওয়ালা বা ভাড়াটিয়াদের বড় ধরনের ঝুঁ’কি থেকে রক্ষা পাওয়া সম্ভব হবে। এর ফলে চু’রি ডা’কাতির মতো ঘটনাগুলোও এড়িয়ে যাবে সংঘবদ্ধ অ’প’রাধী চক্র।

গত ১৮ জানুয়ারি রাজধানীর শাহ’জাহানপুরের একটি বাসায় বৃদ্ধা গৃহকর্ত্রীকে বিবস্ত্র করে লা’ঠিপে’টা করে মা’থা ফাটিয়ে দেন গৃহকর্মী রেখা। এরপর জো’র করে চাবি নিয়ে আলমা’রি থেকে স্বর্ণালঙ্কার ও টাকাসহ মোবাইল নিয়ে পালিয়ে যান। এ ঘটনায় তিন দিন পর ঠাকুরগাঁও রাণীশংকৈল এলাকা থেকে গৃহকর্মী রেখাকে গ্রে’ফতার করে পু’লিশ।

সিসিটিভি ফুটেজে দেখা যায়, সোমবার (১৮ জানুয়ারি) সকাল সোয়া দশটা। কিডনিসহ নানা সমস্যায় ভোগা বিলকিস বেগম শুয়ে ছিলেন বিছানায়। তিন বছর ধরে অ’সুস্থ ওই নারীকে সেবা করছেন গৃহকর্মী রেখা। এর কিছুক্ষণ পর জো’র করে বিলকিস বেগমকে বাথরুমে ঢোকান রেখা। খুলে ফেলা হয় শরীরের সব কাপড়। শীতের সকালে বৃদ্ধার গায়ে ইচ্ছামতো ঢালা হয় ঠান্ডা পানি।

বৃদ্ধ বয়সে বিলকিস বেগমের যে লা’ঠি ছিল ভরসা, তা দিয়েই শুরু হয় মা’রধর। মা’র খেয়ে ফ্লোরে পড়ে গেলেও থামেননি রেখা। একের পর এক আ’ঘাত করা হয় বিলকিসের মা’থায়। একপর্যায়ে হাতের কাছে যা পেয়েছে তা দিয়েই চালিয়েছে নি’র্যাতন।

আলমা’রির চাবির জন্য বুকের ওপরেও চেপে বসেন। বটি হাতেও তেড়ে আসেন রেখা। একসময় অসহায়ের মতো আত্মসম’র্পণ করেন বৃদ্ধা বিলকিস বেগম। গলা থেকে চেইন খুলে রেখা তা পরে নেন আয়েশি ভঙ্গিতে, পরখ করে নেন হাতের বালা।

তারপর আলমা’রির চাবির সন্ধান পান নিষ্ঠুর এ গৃহকর্মী। কিন্তু খুলতে না পেরে র’ক্তাক্ত, অ’সুস্থ বৃদ্ধাকে টেনে নিয়ে বাধ্য করেন আলমা’রি খুলে দিতে। আলমা’রি খোলার পর ড্রয়ার খুলে স্বর্ণ, নগদ টাকা, মোবাইল নিয়ে নেন রেখা।

এরপর বাসায় তালা দিয়ে আ’হত বৃদ্ধাকে রেখে পালিয়ে যান গৃহকর্মী রেখা।

এর আগে ২০১৯ সালের ১০ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর সায়েন্স ল্যাব এলাকার সুকন্যা টাওয়ারের একটি ফ্ল্যাট থেকে মাহফুজা চৌধুরী পারভীনের ম’রদেহ উ’দ্ধার করে পু’লিশ। এ ঘটনায় ১৫ ফেব্রুয়ারি জ’ড়িত স’ন্দেহে গৃহকর্মী স্বপ্নাসহ দুইজনকে গ্রে’ফতার করে পু’লিশ। এরপর মুলহোতা রেশমাকে ২৪ ফেব্রুয়ারি গ্রে’ফতার করা হয়।

ডিবি পু’লিশ জানিয়েছে, চাঞ্চল্যকর এই দুই ঘটনাসহ আরো অনেক ঘটনা আছে যেসব ঘটনায় গৃহকর্মী, পিয়ন, দারোয়ান, নিরাপত্তারক্ষী ও মালিদের জীবনবৃত্তান্ত নেওয়া হয়নি। আবার এমন অনেক ঘটনা আছে যেসব ঘটনায় কারও ফোন নম্বরও নেই। এ কারণে অ’প’রাধীদের ধরতে হিমশিম খেতে হয়। তাছাড়া অনেক ঘটনা আছে পু’লিশ কাউকে শনাক্ত করতে পারে না। এতে বাদী এবং বিবাদীর ন্যায় বিচার পাওয়ার ক্ষেত্রে স’ন্দেহ থাকে।

ডিবি পু’লিশ জানিয়েছে, বাসা-বাড়িতে যাকেই নিয়োগ দেওয়া হোক না কেন তাদের তথ্য ভোটার আইডি কার্ডসহ নিকটস্থ থা’নায় অবহিত করা হলে সেক্ষেত্রে অ’প’রাধ করে কেউ সহ’জে ধ’রা পড়বে। আর অ’প’রাধীরা এমনটি জানতে পারলে অ’প’রাধ করার ক্ষেত্রেও দ্বিধায় পড়ে যাবে।

বৃহস্পতিবার (২১ জানুয়ারি) দুপুরে ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে ডিবির প্রধান হাফিজ আক্তার বলেন, ‘চু’রি, ছিনতাই, ডা’কাতি প্রতিরোধে বুধবার (২০ জানুয়ারি) রাতে রাজধানীতে একইসাথে ডিবির ৩২টি টিম বিশেষ অ’ভিযান চালায়। এ সময় ৩৪ জনকে গ্রে’ফতার করা হয়েছে। সম্প্রতি রাজধানীতে বাসা-বাড়ি ও দোকানের গ্রিল কে’টে, জানালা কে’টে বা ভেঙ্গে চু’রি, ছিনতাই ও ডা’কাতির ঘটনা বৃদ্ধি পাওয়ায় এই বিশেষ অ’ভিযান চালানো হয়।’

তিনি আরও বলেন, ‘সম্প্রতি কিছু ঘটনা ঘটছে, বাসার দুর্বল দিকগুলো টার্গেট করে অ’পকর্ম করছে। বাসার বাথরুম কিংবা কিচেনের পেছনের গ্রিল কে’টে চু’রি ডা’কাতির ঘটনা ঘটছে। এক্ষেত্রে সচেতনতার জন্য বাথরুম বা কিচেনের দরজা লাগিয়ে রাখার জন্য। এছাড়া যাদের সাম’র্থ্য আছে তারা যেন বাসায় সিসি ক্যামেরা বা আইপি ক্যামেরার ব্যবস্থা রাখেন। যে বাড়িতে গৃহক’র্তা-গৃহকত্রী দুজনই চাকরিজীবী, তাদের বাসার নিরাপত্তার জন্য সিসি ক্যামেরা রাখা খুবই উত্তম।’

এ গোয়েন্দা কর্মক’র্তা বলেন, ‘অনেকেই আছেন, অ’পকর্মের ঘটনা ঘটলেও থা’নায় জানান না। এক্ষেত্রে নিজের পাশাপাশি নগরের অন্য বাসিন্দার নিরাপত্তাও বিঘ্নিত হয়। তাই অনুরোধ যে কোনো ধরনের অ’পকর্মের ঘটনা ঘটলে যেন সংশ্লিষ্ট থা’নায় অ’ভিযোগ করা হয়।

ডিবির কর্মক’র্তারা বলেন, ডিএমপি ভাড়াটিয়া তথ্য ফরমের পূরণের জন্য বারবার তাগাদা দিচ্ছে। এ প্রক্রিয়ায় বাসা-বাড়ির তথ্য হালনাগাদ করা হচ্ছে। ভাড়াটিয়া তথ্য ফরম পূরণের ফলে রাজধানীর বাসাবাড়ি ভিত্তিক অ’প’রাধ অনেকটাই কমে এসেছে।

Check Also

চলতি মৌসুমে আজ ঢাকায় সর্বোচ্চ বৃষ্টি, তলিয়ে গেছে অধিকাংশ সড়ক

আজ সকালে চলতি মৌসুমে ঢাকা শহরে সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত হয়েছে। আজ ভোর ৬টা থেকে শুরু হওয়া …