ছাদ থেকে পা পিছলে পড়ে ‘জিনের বাদশা’র মৃত্যু

ছাদ থেকে পা পিছলে পড়ে ভোলার বোরহানউদ্দিনের আলোচিত ‘জিনের বাদশা’র আজাদ হাওলাদারের মৃত্যু হয়েছে। মূলত ‘জিনের বাদশা’র গডফাদার হিসেবে পরিচিত।

সোমবার (১৪ ডিসেম্বর) ভোলার কুঞ্জেরহাটে নিজ ব্যবসা কেন্দ্রের ছাদ থেকে পড়ে মৃত্যু হয় তার।

আজাদ হাওলাদার (৩৭) ভোলার কুঞ্জেরহাটে নিজ ব্যবসা কেন্দ্রের ছাদ থেকে পড়ে মারা গেছেন। তার মৃত্যুর পর আজাদের দীর্ঘ দিনের নানা অপকর্মের কাহিনী ছিল ওই এলাকার প্রধান আলোচনার বিষয়। ছাদের কার্নিশ থেকে তার পড়ে যাওয়াও ছিল রহস্যজনক।

অভিযোগ আছে, আজাদ হাওলাদার দেশব্যাপী জিনের বাদশা সেজে সাধারণ মানুষের কাছ থেকে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন। মৃত্যুর পর তার দীর্ঘ দিনের নানা অপকর্মের কাহিনী নিয়ে চলছে আলোচনা-সমালোচনা।

এ বিষয়ে বোরহানউদ্দিন থানার ওসি মাজহারুল আমিন জানান, আজাদ ভোলার বোরহানউদ্দিন উপজেলার কুঞ্জেরহাট বাজারের বজলু হাওলাদার সুপার মার্কেটের মালিক ছিলেন। ওই ভবনের নিচতলায় দোকানপাট, দ্বিতীয়তলায় ব্যাংক, তৃতীয়তলায় ছিল তার ঘর। সকালে ওই ভবনের ছাদের কার্নিশে পা রাখতে গিয়ে পা পিছলে পড়ে যান তিনি। আহত অবস্থায় ভোলা হাসপাতালে নেয়ার পথেই তিনি মারা যান।

ওসি আরও জানান, স্থানীয়দের অভিযোগ, গত ২০ বছর ধরে আজাদ জিনের বাদশা সেজে প্রতারক চক্র গড়ে তোলে। তার ওই বাহিনীর তিন হাজার সদস্য রয়েছে। পুলিশ ও ডিবি পুলিশের হাতে ১৫ বার আটক হন আজাদ হাওলাদার। ৪ মাস আগেও তিনি ইয়াবা চালানসহ গ্রেপ্তার হয়েছিলেন।

মাজহারুল আমিন জানান, দুই মাস আগে তার বাড়ির ছাদ থেকে একটি লাশ পাওয়া যায়। ওই সময় আজাদ ও তার স্ত্রীকে পুলিশ আটক করেছিল। এছাড়া মাদকসহ জিনের প্রতারণার বেশ কয়েকটি মামলায় তিনি গ্রেপ্তার ও জেল খাটেন। তার ওই চক্র মোবাইলফোন থেকে কল করে সাধারণ মানুষকে জিনের কণ্ঠ ধারণ করে রোগ থেকে নিরাময়, সম্পদ অর্জনসহ বিভিন্ন লোভনীয় প্রস্তাব দিয়ে টাকা হাতিয়ে নিয়েছে বলে অভিযোগ আছে।

Check Also

প্রধানমন্ত্রীর কাছে খালেদা জিয়ার আবেদন

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার দু’র্নী’তির দায়ে দ’ণ্ডি’ত সা’জা স্থগিত করে মু’ক্তির মেয়াদ পূর্বের শর্তে …