ক্রাইম পেট্রোল দেখে খেলনা পিস্তল নিয়ে ব্যাংক লুট করে তারা

ক্রাইম পেট্রোল দেখে ব্যাংক ডাকাতির পরিকল্পনা করে ছিনতাইকারীরা। অস্ত্রের যোগান হিসেবে খেলনা পিস্তল কিনেন তারা। এরপর ওই অস্ত্র নিয়ে পিপিই পরে চুয়াডাঙ্গার উথলী বাজার সোনালী ব্যাংক শাখায় ঢুকে নগদ ৮ লাখ ৮২ হাজার ৯শ’ টাকা লুট করে নিয়ে যায় ছিনতাইকারীরা।
এসব তথ্য জানিয়েছেন চুয়াডাঙ্গার এসপি জাহিদুল ইসলাম।

চুয়াডাঙ্গার জীবননগর উপজেলার উথলী বাজারের সোনালী ব্যাংকে ডাকাতির ঘটনার এক মাস পর চারজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গত রাতে জেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়। এ সময় তাদের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয় লুট করা ৫ লাখ ৩ হাজার টাকা, দুইটি খেলনা পিস্তল, দুইটি চাপাতি, দুইটি মোটরসাইকেল, একটি ল্যাপটপ ও একসেট পিপিই।

গ্রেফতাররা হলেন জীবননগর উপজেলার দেহাটী ফকিরপাড়ার রফিক উদ্দীনের ছেলে সাফাতুজ্জামান রাসেল, জাহাঙ্গীর শাহের ছেলে রকি, আক্তারুজ্জামান বাচ্চুর ছেলে হৃদয় ও মফিজুল শাহর ছেলে মাহফুজ আহম্মেদ আকাশ।

মঙ্গলবার দুপুরে জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয় প্রাঙ্গণে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এসপি জাহিদুল ইসলাম জানান, ঋণের তাড়নায় রাসেল ব্যাংক লুটের পরিকল্পনা করে। তারপর বাকি আসামিদেরকে সম্পৃক্ত করে। সংঘবদ্ধ হয়ে তারা এ অভিযান সফল করে ৮ লাখ ৮২ হাজার ৯০০ টাকা লুট করে নিয়ে যায়। এরপর থেকেই আসামিদের ধরতে মাঠে কাজ করছিলো জেলা পুলিশ ও ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের বেশ কয়টি ইউনিট। এক মাসের মাথায় চারজনকে গ্রেফতার করা হয়। উদ্ধার করা হয় ৫ লাখ ৩ হাজার টাকা এবং লুটের কাজে ব্যবহৃত সরঞ্জাম।

Check Also

ডলার ভর্তি বক্সের আশায় বাংলাদেশি যুবক খোয়ালেন ৫ লাখ টাকা

ফুটবল খেলা এবং ব্যবসার নামে ঢাকায় এসে প্রতারণায় জড়াচ্ছেন অনেক আফ্রিকান। স’ম্প্রতি আফগানিস্তান থেকে ডলার …