ক্যান্সারের সাথে যুদ্ধ সঞ্জয় দত্তের, বিবাহবার্ষিকীতে বিয়ের ছবি পোস্ট করে আবেগঘন স্ত্রী মান্যতা

একের পর এক ধাক্কা বলিউডে। গত বছর থেকেই ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি থেকে ক্রমাগত খারাপ খবর উড়ে আসছিল, যা থামার কোনও লক্ষণ এখনও অব্দি নেই। সেই একরাশ খারাপ খবরের তালিকায় যুক্ত হয়েছিলেন মুন্নাভাইয়ের নামও। মারণ রোগ ক্যান্সারে বাসা বেঁধেছিল অভিনেতা সঞ্জয় দত্তের (sanjay dutta) ফুসফুসে। তাও আবার প্রাথমিক পর্যায়ে নয় একদম স্টেজ-ফোরে গিয়ে ধরা পড়েছে।

শ্বাসকষ্ট এবং বুকে যন্ত্রণা নিয়ে গত বছরেই আগস্ট মাসে মুম্বইয়ের লীলাবতী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন অভিনেতা। অনুরাগীরা প্রিয় নায়ক সুস্থ হয়ে উঠেছেন ভেবে যখন স্বস্তিতে ছিলেন, ঠিক তখনই এই দুঃসংবাদে উদ্বেগ ছড়ায়। চিকিৎসার কারণেই কাজ থেকে বিরতি নিয়েছিলেন বলে সোশ্যাল মিডিয়ায় বার্তাও দেন সঞ্জয় দত্ত। পরে জানা যায় তিনি ক্যান্সারের চিকিৎসা করাতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে গিয়েছেন। কেমোথেরাপির গুনে আস্তে আস্তে সুস্থ হয়ে উঠেছেন সঞ্জু। জানা যায়, শুধুমাত্র নিজের আত্মবিশ্বাসের জোরে অল্প সুস্থ হতে না হতেই অভিনয় জগতে কামব্যাক করেছেন সঞ্জয় দত্ত।

প্রসঙ্গত সঞ্জয়ের (sanjay dutta) শেষ ছবি ছিল সড়ক-২, ওটিটি প্ল্যাটফর্মে মুক্তি পাওয়া এই ছবি একেবারেই ব্যর্থ হয়। আপতত KGF: Chapter2 ছবির শ্যুটিংয়ের প্রস্তুতি নিচ্ছেন তারকা। ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গিয়েছে এই ছবির শ্যুটিং। এমনকি কেজিএফ চ্যাপ্টার-২ এ ‘অধীরা’ চরিত্রে সঞ্জয় দত্তের ফার্স্ট লুকও প্রকাশ peyech। গত বুধবার ৬১ বছর পূর্ণ করেছেন সঞ্জয় দত্ত। আর ওই দিনেই এই পোস্টার মুক্তি পেয়েছে যা জন্মদিনে সব থেকে বড় উপহার বলে টুইট করেছেন সঞ্জয়। পোস্টারে সঞ্জয় দত্তকে একদম চমকে দেওয়া লুকে দেখা যাচ্ছে। তাঁর লুকটি ২০১৩ সালে টিভি সিরিজ ভাইকিংয়ের চরিত্রদের মতো করে চুল, পোশাক, মুখে ট্যাটু দিয়ে সাজানো হয়েছে। তুমুল ভাইরালও হয়েছিল অভিনেতার এই লুক। এছাড়া ‘পৃথ্বীরাজ’ ছবিতেও দেখা যাবে সঞ্জয় দত্তকে।

বলিউডে অভিনেতা সঞ্জয় দত্ত (sanjay dutta) নিজের একাধিক প্রেমের সম্পর্কের জন্য বেশ জনপ্রিয়। অভিনেতার একটা ইন্ড্রাস্টিতে বহুজনের সাথে সম্পর্কে জড়ান। ১৯৮০-এর দশকের শুরুতে তিনি তার প্রথম চলচ্চিত্রের সহশিল্পী টিনা মুনিমের সাথে সম্পর্ক গড়েন। তারপর ১৯৮৭ সালে অভিনেত্রী ঋচা শর্মাকে বিয়ে করেন। ঋচা ১৯৯৬ সালে মস্তিকের টিউমারে আক্রান্ত হয়ে মারা যান। ১৯৮৮ সালে তাদের কন্যা ত্রিশলা জন্মগ্রহণ করে। ১৯৯৮ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে রিয়া পিল্লাইকে বিয়ে করেন। ২০০৫ সালে তাদের মধ্যে বিচ্ছেদ হয়ে যায় এবং ২০০৮ সালে তা বিবাহবিচ্ছেদে রূপ নেয়। এরপর সঞ্জয় ২০০৮ সালে গোয়াতে গোপন এক অনুষ্ঠানে মান্যতা দত্তের (দিলনেওয়াজ শেখ) সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। তার পর তার দুই যমজ সন্তান হয় ইকরা ও শাহরান।

তাদের বিয়ে হয়ে গিয়েছে তারপর কেটে গিয়েছে প্রায় এক যুগ। ১৩ বছরের বিবাহ বার্ষিকীতে এবার এই রোম্যান্টিক কাপলস্ এর আওতায় নিজের ও সঞ্জয়ের কিছু ছবি শেয়ার করলেন মান্যতা দত্ত। এটি আসলে এদের বিয়ের কিছু রোম্যান্টিক ছবি৷ স্বামীর সঙ্গে এই ছবিতে মান্যতাকে বেশ লাজুক মুখে হাসতে দেখা যায়। ১৩ বছর বিবাহ বার্ষিকীর পুরোনো ছবি শেয়ারের ক্যপশানেও লিখলেন, ‘আরও একটি বছর কেটে গেল, যেখানে প্রতি মুহূর্তে একে অপরের সঙ্গে ও পাশে থেকেছেন তাঁরা, একে অপরের অন্ধকারকে ঢেকে দিয়ে, আলোকে সঙ্গী করে এগিয়ে গিয়েছেন তাঁরা জয়ের পথে। হাতে হাত রেখে কেটে গেল আরও একটি বছর।’ এভাবেই তাঁরা জীবনের বাকি বছরগুলি কাটিয়ে দিতে চান। সঞ্জয় এখন পুরোপুরিই সুস্থ। বিবাহ বার্ষিকীতে স্বামীর আরোগ্য কামনা করে তিনি এই ছবিগুলো পোস্ট করেন। এই ছবি পোস্ট হওয়া মাত্র নিমেষে ভাইরালও হয়েছে সমাজমাধ্যমের প্রতিটি কোণে কোণে।

Check Also

বাড়ি তৈরির কাজ প্রসঙ্গে সংবাদে বিব্রত সানাই

‘আমার বাবা একটি বেসরকারি ব্যাংকের সাবেক উপমহাব্যবস্থাপক (ডিজিএম)। তার নিজস্ব অর্থায়নে রংপুরে আমাদের পৈতৃক সম্পত্তিতে …