কুয়াশা ভরা প্রে’মের সন্ধান দিলেন সৃজিত-মিথিলা

সেই পাহাড়ের কাছে থাকবে গহন অরণ্য, আমি সেই অরণ্য পার হয়ে যাব’, সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়ের এই কবিতার মতো তাঁরাও সেই পাহাড়ের খোঁজেই বেরিয়েছিলেন। কুয়াশায় সবুজ ঢাকা পড়েছে।

কিন্তু একে অন্যকে চেনাটা আরও সহ’জ হয়ে গিয়েছে যেন। সেরকমই একটা খুব দামি সময় কা’টালেন মিথিলা, সৃজিত ও আয়রা।

দক্ষিণ সিকিমের শীতের পাহাড়! তারই কিছু মন্তাজ ধ’রা পড়ল মিথিলার টুইটে। মন্তাজে কেবল পাহাড় নয়, পাহাড়ের মাঝে তাঁদের বাসস্থানের ছবিও দেখালেন পরিচালক সৃজিত মুখোপাধ্যায়ের স্ত্রী’ মিথিলা রাফিয়াত রশিদ।

পোস্টে মিথিলা ধন্যবাদ জানালেন ‘প্রিয়া সিনেমা’-র কর্ণধার অরিজিৎ দত্তকে। বোঝা গেল, তাঁর জন্যেই মিথিলারা এই অ’পূর্ব বাসস্থানের সন্ধান পেয়েছিলেন। এ ছাড়া সুন্দর এই ‘ফ্যামিলিটাইম’টি পেয়ে তাঁরা কতটা আনন্দিত সে কথাও উল্লেখ করলেন পোস্টে।

ছবির কোলাজে তাঁদের আনন্দের মেজাজও স্পষ্ট। ‘হিট ট্রায়ো’-র ‘মাচ নিডেড ব্রেক’-এর প্রে’মের মুহূর্তগু’লির সঙ্গে পরিচয় ঘটল নেটাগরিকের। মিথিলার পোস্টটি শেয়ার করলেন সৃজিতও।

মিথিলা-কন্যা আয়রা খান ও সৃজিতের রসায়ন যে বেশ জমে উঠেছে তার নিদর্শন আগেই পাওয়া গিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। তা ছাড়াও আয়রার বাবা অর্থাৎ মিথিলার প্রাক্তন স্বামী, বাংলাদেশের বিখ্যাত গায়ক ও অ’ভিনেতা তাহসান রহমান খানের সঙ্গে একান্ত সাক্ষাৎকারে আনন্দবাজার ডিজিটাল জানিয়েছিল যে সৃজিতের সঙ্গে তাঁর মে’য়ের সুস’ম্পর্কে বড্ড খুশি তিনি। এর আগেও তিনি পরিচালক হিসেবে সৃজিতকে বেশ পছন্দ করতেন। আর এখন তাঁর মে’য়ের কারণে ব্যক্তি সৃজিতকে চিনেছেন। উৎফুল্ল তাহসান জানিয়েছিলেন তাঁর সেই অ’ভিব্যক্তির কথা।

Check Also

ইশ! আজ যদি মা বেঁচে থাকতেন: দীঘি

বর্তমান সময়ের জনপ্রিয় নায়িকা দীঘি। আলোচনা- সমালোচনা নিয়েই তার ক্যারিয়ার। বরাবরই তিনি আলোচনায় থাকেন। ফের …