কাউকেই ঠকাতে পারবে না, তাই দুই প্রে’মিকাকে একসঙ্গে বিয়ে করলেন যুবক!

একজন নয়, এক সঙ্গে দু’দুজন নারীকে বিয়ে করলেন ২৪ বছর বয়সী এক যু’ব’ক। এমন ঘ’টনা ঘ’টেছে ভা’রতের ছত্তিশগড়ের বস্তার জে’লায়। বিয়ের এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন পরিবারের লোকজন থেকে শুরু করে গ্রামবাসীরা। আর যু’ব’কের কী’র্তি দেখে অ’বাক হয়েছেন সকলেই।

চন্দু মৌর্য নামে ওই যু’ব’ক জানান যে দুই ত’রু’ণীই তাকে ভালবাসে। তাই তিনি কাউকেই ঠ’কাতে পারবেন না। তাই দু’জনকেই একসঙ্গে বিয়ে করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। চন্দু আরো জানান, দু’জনই তাঁর সঙ্গে সারাজীবন থাকতে রাজি আছেন। ফলে দুই স্ত্রী’ নিয়ে তার বিবাহিত জীবন আরও সুন্দর হবে বলেই আশাবাদী বছর চব্বিশের যু’ব’ক।

কিন্তু দুই ত’রু’ণীই কী’ভাবে তাঁর প্রে’মে পড়ে গেলেন? জানা গেছে, একবার বস্তারের তোকপাল এলাকায় একটি ইলেকট্রিকের পোল লাগাতে যায় চন্দু। সেখানে ২১ বছরের সুন্দরী কাশ্যপের প্রে’মে পড়েন পেশায় দিনমজুর ও কৃষিকাজের সঙ্গে যু’ক্ত যু’ব’ক। দু’জনে বিয়ে করবেন বলে সিদ্ধান্ত নেন। কিন্তু বছর ঘুরতে না ঘুরতেই তার গ্রাম তি’ক্রাল’ঘ’নায় একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে হাসিনা বাঘেল (২০) নামে অন্য এক ত’রু’ণীর প্রে’মে পড়ে যায় চন্দু। সেই টানও অগ্রা’হ্য করতে পারেন না।

চন্দুর দাবি, তার প্রে’মিকা রয়েছে জেনেও হাসিনা তার সঙ্গে স’ম্পর্কে জড়াতে চায়। এরপর চন্দু তার দুই প্রে’মিকার মধ্যে আলাপ-পরিচয় করিয়ে দেন। তিনজন একসঙ্গে চন্দুর বাড়িতে তার পরিবারের সঙ্গে থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। তবে বিয়ের অনুষ্ঠানে হাসিনার পরিবারের লোকজন উপস্থিত থাকলেও ছিলেন না সুন্দরীর তরফের কেউ। গত ৫ জানুয়ারি বিয়ে হয় তিনজনের।

Check Also

মমতার বাড়ি নেই, গয়নাও ১ ভরির কম

ভা’রতের রাজনীতিতে বিভিন্ন পর্যায়ে দু’র্নী’তিতে আ’ক্রা’ন্ত হয়ে যখন দেশের অনেক নেতা জর্জ’রিত তখন এক ব্যতিক্রমী …