‘আ’পেল’র বিনিময়ে স’র্ব’স্ব দিতে চান ত’রু’ণী

বা’ন্ধ’বী তৃ’ণার হ’ঠাৎ প’রিব’র্তন। এ’কদ’ম মেঘ না চা’ইতে’ই বৃ’ষ্টি’র মতো। হ’ঠাৎ ক’রেই ব’ন্ধু সা’দিক’কে ব’লছি’লেন, ‘তু’মি যা চা’ও, তা’ই হবে। ভা’র্সি’টি বন্ধ। যখন যে’খা’নে চা’ইবে চ’লে আ’স’বো তো’মার কা’ছে। দু’ঘ’ণ্টা থা’ক’বো। বি’নিম’য়ে আ’মা’কে ৫টি আ’পেল দি’তে হবে। নি’য়মি’ত দি’তে পা’রবে?’ আ’পেল।

এ’কটি ফ’লের নাম। শ’ব্দ’টি বে’শ চে’না হ’লেও থ’ম’কে যা’ন আ’ব’দুস সা’দিক। এটা নি’শ্চ’য়ই চি’রচে’না সেই আ’পে’ল না। বি’স্ম’য় প্র’কা’শ ক’রে তৃ’ণা’র কা’ছে জা’ন’তে চান, আ’পেল? এবার ‘হা হা হা’ করে হাসতে হাসতে বুঝিয়ে ব’লে’ন তৃণা, ‘আ’রে গা’ধা, এটা সেই আ’পে’ল না। এটা বা’বা। ট্যা’বলে’ট।’ এবার পু’রো’টাই বুঝতে পা’রেন সাদিক। তা’রপ’রও বি’স্ম’য়ের শে’ষ নেই।

এ’ত’টা অ’ধ:প’ত’ন হ’লো কী করে? ছয় মাস আ’গেও তৃ’ণা এর’ক’ম ছি’লেন না। উ’চ্চ বি’লা’সী ছি’লেন ব’টে। স’ম’য়-স’ম’য় দা’মি পো’শা’ক, দা’মি পা’রফি’উম ব্য’বহা’র ক’রতে’ন। অ’ভিজা’ত পা’র্লা’রে, রে’স্টু’রে’ন্টে যে’তে প’ছ’ন্দ ক’রতে’ন। ত’বে ক’থা ক’ম ব’লতে’ন। আ’ত্মী’য় এক ব্য’বসা’য়ী’র স’ঙ্গে প্রে’মে’র স’ম্প’র্ক ছি’লো। ও’ই যু’ব’ক ছা’ড়া কা’রও স’ঙ্গে তে’মন মি’শতে’ন না। ভা’র্সি’টি’র ব’ন্ধু বলতে সা’দি’ক। অ’ন্য’দের স’ঙ্গে হা’ই হ্যা’লো ছা’ড়া তে’মন ক’থা হতো না।

বা’বা’র ব্য’ব’সা নি’য়ে ব্য’স্ত সা’দি’ক। তৃ’ণা’র স’ঙ্গে দে’খা হ’তো ক’ম। ভা’র্সি’টির ধা’নম’ন্ডি ক্যা’ম্পা’সে গে’লে’ই দে’খা হ’তো দু’জ’নের। ত’বে ফো’নে ক’থা হ’তো মা’ঝে-ম’ধ্যে’ই। এ’বা’র কৌ’তূহ’ল থেকে’ই তৃ’ণা’র খোঁ’জ নি’তে থা’কে’ন। এ’কটি ফ্ল্যা’ট বা’সায় তৃ’ণা’স’হ তি’ন বা’ন্ধ’বী থা’কতে’ন। হ’ঠা’ৎ ক’রেই ক’য়েক মা’স আ’গে বা’সা ছে’ড়ে দে’ন। ব্যব’সা’য়ী ওই প্রে’মি’কের স’ঙ্গে স্বা’মী-স্ত্রী প’রিচ’য়ে বা’সা নে’ন মো’হাম্ম’দপু’রে। তৃ’ণা’কে অ’ব’শ্য শু’রু’তে’ই রো’শা’ন ব’লে’ছে’ন, ক’খন’ও বি’য়ে ক’রবে’ন না তা’কে। ত’বে তৃ’ণা’র স’ক’ল ব্য’য় ব’হ’ন ক’রবে’ন তি’নি। সবকিছু গো’পন রা’খার শ’র্তে ম’ধ্যবি’ত্ত প’রি’বা’রের মে’য়ে তৃ’ণা রা’জি হয়ে যায়।

রা’জি’য়া সু’লতা’না রো’ডের তৃ’তী’য় ত’লা’র এক’টি বা’সায় রো’শান-তৃ’ণার আ’ড্ডা হ’তো। প্রে’মি’ক রো’শা’ন ব’ন্ধু’দের নি’য়ে আ’ড্ডা ব’সাতে’ন। স’প্তা’হে অ’ন্তত এ’ক রা’তে আ’ড্ডা হ’তো’ই। শ’হ’রের ক’য়েক প’রিচি’তমু’খও হা’জির হ’তো এ’ই আ’ড্ডা’য়। ম’দ ও ই’য়াবা’য় বুঁ’দ হ’তো অং’শগ্রহ’ণকা’রী’রা। রো’শা’ন দী’র্ঘ’দি’ন থে’কে’ই ই’য়াবা’য় আ’স’ক্ত। তৃ’ণা প্র’থ’মে বা’ধা দি’তে’ন। রো’শা’ন চে’ষ্টা ক’রতে’ন তৃ’ণা’কে’ও ই’য়াবা’য় আ’স’ক্ত ক’র’তে। এ’তে সু’বি’ধা হয়। বা’ধা-বি’প’ত্তি থা’কে না। কয়েক মাসের মধ্যেই রো’শা’ন বদলে যে’তে থা’কেন। ক’ম’বয়’সী এক মে’য়ে’র প্রে’মে ডু’বে যা’ন রো’শা’ন। তৃ’ণা এ’কা হ’য়ে যা’ন। বা’সা ভা’ড়া, নি’জে’র ব্য’য় ব’হ’ন ক’রা দু’ষ্ক’র।

এ’রম’ধ্যে’ই যো’গ হ’য়ে’ছে নে’শা। ই’য়া’বা ছা’ড়া এ’ক’টা দি’ন’ও চ’লে না। সে’বন না ক’র’লে তী’ব্র এ’ক’টা অ’ভা’ব বো’ধ ক’রে’ন। রো’শা’ন’কে ভু’লে থা’ক’তে ই’য়াবা’তে’ই ম’জে থা’ক’তে চা’ন তি’নি। ভা’ড়া দি’তে ক’ষ্ট হ’চ্ছি’লো, তা’ই বা’সা ছে’ড়ে এক না’রী’র স’ঙ্গে সা’বলে’টে ও’ঠে’ন এ’বার।

ময়’ম’নসিং’হের বা’ড়ি’তে থা’কা মা-বা’বার কা’ছ থে’কে মি’থ্যা ক’থা ব’লে বা’রবা’র টা’কা আ’নেন। ভা’র্সিটি’র টি’উ’শন ফি ‘বকে’য়া হ’য়ে যা’য়। এ’তে খে’য়া’ল নে’ই তার। এখ’ন ই’য়া’বা ছা’ড়া কি’চ্ছু চা’ন না তি’নি। মা’দ’কে’র নে’শা’য় বে’প’রো’য়া হ’য়ে যা’ন তৃ’ণা। মি’থ্যা ব’লে ব’লে ধা’র-দে’না ক’রে’ন। প’রি’চি’ত ব’ন্ধু’দে’র স্বে’চ্ছা’য় কা’ছে ডা’কে’ন। তা’দে’র প্র’মো’দ ভ্র’ম’ণে স’ঙ্গী হ’ন। ঢা’কা থে’কে চ’ট্ট’গ্রা’ম, ক’ক্স’বা’জা’র..। বি’নি’ম’য়ে টা’কা নে’ন। ই’য়া’বা নে’ন।

শে’ষপ’র্য’ন্ত ব’ন্ধু সা’দি’কে’র মা’ধ্য’মে মা’দ’কা’স’ক্তি নি’রা’ম’য়’কে’ন্দ্রে ভ’র্তি ক’রা হ’য়ে’ছে তা’কে। স’ম্প্র’তি তৃ’ণা’র স’ঙ্গে ক’থা ব’লে জা’না গে’ছে, সু’ন্দ’র উ’জ্জ্ব’ল প’থ হা’রি’য়ে কি’ভা’বে ঘো’র অ’ন্ধ’কা’রে হা’রি’য়ে যা’ন তি’নি। অ’বশে’ষে ভু’ল বু’ঝ’তে পে’রেছে’ন। এ’খন সু’স্থ, সু’ন্দর জী’বনে ফি’রতে চা’ন এ’ই ত’রু’ণী। তৃ’ণার পা’শে দাঁ’ড়িয়ে’ছে তা’র প’রি’বার ও ব’ন্ধু লা’লমা’টিয়া’র বা’সি’ন্দা আ’বদু’স সা’দিক। তৃ’ণা ছ’দ্ম না’মে’র এ’ই ত’রু’ণী অ’ন্ধ’কা’র অ’তী’ত ভু’লে থা’ক’তে চা’ন। সূত্র: মা’নবজ’মিন।

Check Also

ধেয়ে আসছে বিশালাকার গ্রহাণু

একটি বিশালাকার গ্রহাণু ধেয়ে আসছে পৃথিবীর দিকে। আন্তর্জাতিক মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা জানিয়েছে, এটি পৃথিবীর …