আর দেখা যাবে না সিদ্দিকুর রহমানকে!

ছোটপর্দার জনপ্রিয় অভিনেতা সিদ্দিকুর রহমান সিদ্দিক। কমেডি অভিনয় করে দেশব্যাপী পরিচিতি পেয়েছেন তিনি। মঞ্চ নাটকের মাধ্যমে অভিনয়ে ক্যারিয়ার শুরু হলে পরে থিতু হয়েছেন ছোটপর্দায়। অভিনয়ের পাশাপাশি একাধি নাটক রচনা ও পরিচালনা করেছেন সিদ্দিক।

ছোটপর্দায় এ অভিনেতার পথচলা শুরু ২০০৫ সালে। তারপর থেকে একাধিক দর্শকপ্রিয় নাটকে অভিনয় করেছেন তিনি। ‘কবি বলেছেন’, ‘হাউসফুল’, ‘গ্র্যাজুয়েট’, ‘মাইক’, ‘বন্ধু এবং ভালোবাসা’, ‘সংবিধিবদ্ধ সতর্কীকরণ’, ‘ড্যান্স ডিরেক্টর’, ‘ছাইয়া ছাইয়া’ ইত্যাদি সিদ্দিক অভিনীত জনপ্রিয় নাটক এবং ধারাবাহিকগুলোর অন্যতম।

সিদ্দিকের অভিনয় জগতে আসা পছন্দ করতেন না তার বাবা-মা। অভিনয় করে প্রথম উপার্জনের টাকা মায়ের হাতে দেন তিনি। তবুও খুশি হননি তার মা। বাবা-মায়ের ভাবনা, ছেলে বুঝি খারাপ হয়ে যাচ্ছে। সিদ্দিক যখন জনপ্রিয় হয়ে ওঠেন তখন তার মা তাকে কিছুটা বুঝতে পারেন। এক সাক্ষাৎকারে কথাগুলো নিজেই জানিয়েছেন এ অভিনেতা।

তিনি আরও জানান, বাবা মারা যাওয়ার সময় সিদ্দিককে তিনটি ওয়াদা করিয়েছেন। সে ওয়াদার কারণেই অভিনয় ছেড়ে দিবেন তিনি। সিদ্দিকের ভাষায়, বাবা মারা যাওয়ার আগে আমার হাত ধরে তিনটা ওয়াদা করিয়েছেন। একটা আমি পূরণ করেছি। এটা আমি বলতে চাচ্ছি না। এর মধ্যে একটা হলো তুমি যতটা পার মিডিয়াটা ছেড়ে দিও। এ মিডিয়াটা ছাড়তে হবে কারণ, তোমাকে মরতে হবে। যত দ্রুত সম্ভব এটা তুমি করবা। তৃতীয়টা হলো, আমি যেন আমার এলাকা থেকে নির্বাচন করি। সেটা আমি চেষ্টা করে যাচ্ছি।

২০১৫ সালে বাবাকে হারান সিদ্দিক। বাবা মারা যাওয়ার আগে তিনটি ওয়াদা করেন সিদ্দিক। বাবাকে দেওয়া কথা রাখতেই অভিনয় ছাড়বেন তিনি। অভিনয় থেকে সরলেও মানুষের পাশে থাকবেন এ অভিনেতা।

Check Also

ইশ! আজ যদি মা বেঁচে থাকতেন: দীঘি

বর্তমান সময়ের জনপ্রিয় নায়িকা দীঘি। আলোচনা- সমালোচনা নিয়েই তার ক্যারিয়ার। বরাবরই তিনি আলোচনায় থাকেন। ফের …