আমি যে কোনো সময় টিকা নিতে প্রস্তুত : হিরো আলম

আজ আমাদের খুবই আনন্দের একটি দিন। আজ শুভ একটি দিন। আজ দেশে প্রথমবারের মতো টিকা দেওয়া হচ্ছে এটা আমাদের জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ দিন। আমি শুনেছি একজন নার্সকে প্রথম টিকা দেওয়া হবে।

দেশের যাদের আগে প্রয়োজন তাদের টিকা দেওয়া হলেই ভালো। এরপর সাধারণ মানুষ যারা আগ্রহী তারা টিকা নিবে। আর আমিও টিকা নিতে প্রস্তুত। যখন আমাকে বলা হবে অবশ্যই আমি টিকা নিবো। সরকারকে ধন্যবাদ জানাই যে আমাদের দেশে এতো তাড়াতাড়ি টিকা নিয়ে আসা হয়েছে।

বুধবার দুপুরে এফডিসিতে অবস্থান করছিলেন আশরাফুল আলম ওরফে হিরো আলম। সেখানেই করোনা ভ্যাকসিন নিয়ে আলাপকালে নিজের ইচ্ছার কথা জানালেন হিরো আলম। বললেন, করোনা থেকে এখন মুক্তির পথ তৈরি হয়েছে। আমরা সৃষ্টিকর্তার কাছে কৃতজ্ঞ যে ভ্যাকসিন আবিস্কার হয়েছে।

হিরো আলম বললেন, আমি শুনেছি ভারত আমাদের বন্ধু দেশ হিসেবে আমাদেরকে ভ্যাকসিন উপহার দিয়েছে। আবার সরকার টাকা দিয়েও কিনে এনেছে। আমরা এতো দিনের দুর্যোগ শেষে একটা ভালো সময় পেতে যাচ্ছি। নিশ্চই আমরা সৃষ্টিকর্তার কাছে কৃতজ্ঞ। একইসাথে আমি দেশের সরকার ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকেও ধন্যবাদ জানাই।

কবে টিকা নেবেন এমন প্রশ্নের জবাবে হিরো আলম বলেন, আমি যে কোনো সময় টিকা নিওতে প্রস্তুত। আমাকে যদি বলা হয় আজই টিকা দেওয়া হবে আমি আজই নিবো। কারণ কেউ করোনায় মরতে চায় না। করোনা থেকে বাঁচার পথ এই টিকা, আমরা যারা মিডিয়ায় কাজ করি, সরকার যখনই আমাদেরকে টিকা দেবে, আমি সবার আগে এগিয়ে যাবো।

আশরাফুল আলম ২০১৬ সালে ফেসবুক গ্রুপগুলোতে ট্রোলড হচ্ছিলেন। সেই সময় তিনি বগুড়ার প্রত্যন্ত অঞ্চল এরুলিয়া থেকে গণমাধ্যমে প্রথমবার জায়গা পান। হিরো আলম সম্পর্কে অবাক করা তথ্য গোগ্রাসে গিলতে শুরু করে নেটিজেনরা। আগ্রহ দেখায় শোবিজের মানুষরা। এমনকি চলচ্চিত্রেও নেওয়া হয় হিরো আলমকে। পরে নিজের টাকা খরচ করে চলচ্চিত্র বানান হিরো আলম।

Check Also

বাড়ি তৈরির কাজ প্রসঙ্গে সংবাদে বিব্রত সানাই

‘আমার বাবা একটি বেসরকারি ব্যাংকের সাবেক উপমহাব্যবস্থাপক (ডিজিএম)। তার নিজস্ব অর্থায়নে রংপুরে আমাদের পৈতৃক সম্পত্তিতে …