আমা’র সন্তান নিয়ে নানা ধরনের কথা হয়েছে, সন্তান জীবনের সবচেয়ে স্প’র্শকাতর অধ্যায়: বুবলী

বাংলাদেশি বিনোদন জগতের অন্যতম জনপ্রিয় একজন অ’ভিনেত্রী হলেন শবনম বুবলি সংবাদ পাঠিকা থেকে সরাসরি সিনেমা’র পর্দায় আসেন বুবলি এবং

হঠাৎ সিনেমা’র পর্দায় সে রীতিমত বাজিমাত করে ফেলেন তিনি ঢাকায় শীর্ষ অ’ভিনেতা শাকিব খানের সাথে জুটি বেঁধে বেশ কয়েকটি সিনেমা করেন তিনি এরপর ব্যাপক আলোচনায় চলে আসেন এবং

কয়েক মাস ধরে যেই বুবলীকে কোথাও খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না, তাঁর নম্বর থেকে এমন এসএমএস দেখামাত্রই ফোন করলাম।

কে’টে দিলেন। কিছুক্ষণ পর অ’পরিচিত একটি নম্বর থেকে ফোন, ও প্রান্ত থেকে বললেন, ’আমি বুবলী।’ ’আরে, আপনি কোথায়?

অনেকে বলছেন, পুরোনো ছবি। ছবিটা আসলে কবেকার?এই ছবি একদমই নতুন। অনেকে আমা’র পরিবর্তন দেখে কনফিউজড হচ্ছেন।

আমা’র মজাই লাগছে। নতুন বছরে নতুন লুক নিয়ে দর্শকের সামনে হাজির হতে চেয়েছি। তাই সপ্তাহ দেড়েক আগে ফটোশুট করেছি। নতুন লুক সবাই খুব পছন্দ করেছেন।

বছরের প্রথম দিনে তাঁর ফেসবুক পেজে নতুন লুক নিয়ে হাজির হয়েছেন বুবলী বছরের প্রথম দিনে তাঁর ফেসবুক পেজে নতুন লুক নিয়ে হাজির হয়েছেন বুবলীছবি : বুবলীর সৌজন্যে

ছবিতে আপনার পরিবর্তন ছিল লক্ষণীয়। নিজের এতটা পরিবর্তন কী’ভাবে করলেন?নিজেকে অনেক বেশি গ্রুমিং করতে হয়েছে।

অনেক সময় দিতে হয়েছে, প্রস্তুতি নিতে হয়েছে। নিউ লুক উপস্থাপন তো, নট আ ম্যাটার অব জোক, ইট টেকস টাইম।

ই জায়গা থেকে অনেক পরিশ্রম করতে হয়েছে। তাই নিজেকে ফিট রাখার চেষ্টা করি। অনেক সময় চাইলেও কাজের চাপে তা সম্ভব হয় না।

এবার যেহেতু লম্বা সময় কাজ ছিল না, তাই নিজেকে তৈরির সময়টা দিয়েছি।তার মানে কোভিড-১৯–এর সময়টা ভালোই কাজে লাগিয়েছেন?

একদমই তা–ই। এই সময়ে নিজেকে নিয়েই ব্যস্ত থেকেছি সবচেয়ে বেশি।মায়ের সঙ্গে বুবলী মায়ের সঙ্গে বুবলী ছবি : খালেদ সরকার তা ওজন কতটা কমিয়েছেন?

অনেক। অনেক। চলচ্চিত্রে প্রথম যখন এসেছিলাম, তার চেয়েও ওজন অনেক কমিয়েছি।ওজন কত কমিয়েছেন, তা কিন্তু বললেন না।

২০-২২ কেজি ওজন কমিয়েছি। আমি আসলে কখনোই চোখে পড়ার মতো ফ্যাট ছিলাম না। কিন্তু তারপরও আমা’র মনে হয়েছে,

আরও প্রপার হতে হবে, ভালো কিছু কাজের জন্য। সে কারণেই ওজন কমানোর মিশন।তার মানে খাওয়াদাওয়া ও জীবনাচরণে অনেক পরিবর্তন আনতে হয়েছে নিশ্চয়।

একদমই তা–ই। খাওয়াদাওয়া যে ছেড়ে দিয়েছি, তা কিন্তু নয়। ওজন কমানোর জন্য তা সঠিক পদ্ধতিও নয়।

প্রপার ডায়েট মেনটেইন করতে হয়েছে, যাতে অ’সুস্থ না হয়ে যাই। সবকিছু আসলে রুটিন মেনে করতে হয়েছে। সবকিছু আসলে একটা প্রক্রিয়া।

জানতে পারলাম, পরিচালক সৈকত নাসির ও চিত্রনায়ক নিরবের সঙ্গে ’ক্যাশ’ ছবিতে অ’ভিনয়ের ব্যাপারে আপনার সঙ্গে আলাপ হয়েছে।

আপনি ১০ লাখ টাকা পারিশ্রমিকও চেয়েছিলেন। এরপর আর ছবিতে আপনার নাম শোনা যায়নি। পূজা চেরি কাজ করছেন। আসল ঘটনা কী’ বলবেন?

Check Also

বাড়ি তৈরির কাজ প্রসঙ্গে সংবাদে বিব্রত সানাই

‘আমার বাবা একটি বেসরকারি ব্যাংকের সাবেক উপমহাব্যবস্থাপক (ডিজিএম)। তার নিজস্ব অর্থায়নে রংপুরে আমাদের পৈতৃক সম্পত্তিতে …