আমার ছেলেকে ক্রিকেটার হিসেবে গড়ে তোলার আগে কুরআনের হাফেজ বানাতে চাই: তাইজুল

পুত্রসন্তানের বাবা হয়েছেন ক্রিকেটার তাইজুল ইসলাম। প্রথম সন্তানের বাবা হওয়ার আনন্দের আত্মহারা জাতীয় দলের এই তারকা ক্রিকেটার। বাবা হিসেবে দায়িত্ব আরও বেড়ে

গেলে জাতীয় দলের এই টেস্ট স্পেশালিস্ট বোলারের। একান্ত সাক্ষাৎকারে নাটোরের এ ক্রিকেটার বলেন, ছেলেকে ক্রিকেটার হিসেবে গড়ে তোলার আগে কুরআনের হাফেজ

বানাতে চাই। তাইজুল বলেন, এখন ওইভাবে চিন্তা করিনি। ক্রিকেটার পরের ব্যাপার। আমি চাইছি যে হয়তোবা হাফেজ যদি করা যায়, আল্লাহ যদি রহম করেন। কুরআনের হাফেজ করার ইচ্ছা আছে আরকি। এটা আমার ইচ্ছা আরকি।

রাষ্ট্রের বিরোধিতা করার দুঃসাহস দেখাবেন না: আইজিপি

পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. বেনজীর আহমেদ বলেছেন, আমার দেশের স্বাধীনতা, সংবিধান, রাষ্ট্র ও জনগণকে কেউ স্পর্শ করতে পারবে না।

১৮ কোটি মানুষ ও রাষ্ট্র মিলে আমরা সবকিছু মোকাবিলা করব। রাষ্ট্রপক্ষরা শক্তিশালী। রাষ্ট্রের বিরোধিতা করার দুঃসাহস আপনারা দেখাবেন না।

রাষ্ট্রের বিরোধিতা মানে হচ্ছে ১৮ কোটি মানুষের বিরোধিতা। বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যে হামলা সংবিধান, রাষ্ট্র ও এদেশের জনগণের ওপরে হামলা। রাষ্ট্র এ হামলা আইন, বিধিবিধান অনুযায়ী কঠোর হস্তে মোকাবিলা করবে।

আজ শনিবার সকালে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে সরকারি কর্মকর্তা ফোরাম আয়োজিত এক সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাঙচুরের প্রতিবাদে ‘জাতির পিতার সম্মান রাখব মোরা অম্লান’ শ্লোগানে এ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

এতে বক্তব্য দেন এলজিআরডি মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব ও বাংলাদেশ অ্যাডমিনিস্টেটিভ সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি

মো. হেলাল উদ্দিন এবং বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিসের ২৯টি ক্যাডারের প্রতিনিধিরা। সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব ড. আহমদ কায়কাউস।

আইজিপি বেনজীর আহমেদ বলেন, ‘দেশটাকে উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে মৌলবাদী গোষ্ঠী তে পরিণত করতে চান কেন? কিছু হলেই ঢাকা শহরে জঙ্গি মিছিল,

মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়া, সৌদি আরবে এ রকম মিছিল দেখি না। জঙ্গি মিছিল করে দেশটাকে জঙ্গিবাদের দিকে নিয়ে যাচ্ছেন কেন? কার উদ্দেশ্য হাসিল করতে চান?

দেশবাসীকে, ধর্মপ্রাণ মুসলমানদেরকে এই বিষয়গুলো বুঝতে হবে, আমাদের বুঝতে হবে…কারা দুশমন, কারা স্বেচ্ছাচারিতা করছে, কারা ইসলামকে বিতর্কিত করছে।’

বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাঙচুরের ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান বক্তারা। তারা বঙ্গবন্ধুর বিরুদ্ধে যেকোনো ষড়যন্ত্র মোকাবিলা এবং স্বাধীনতাবিরোধী ও অসাম্প্রদায়িক শক্তির

বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ থাকার অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত করেন। প্রজাতন্ত্রের কর্মকর্তারা বঙ্গবন্ধুর সম্মান ও মর্যাদা রক্ষার মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার

নেতৃত্বে বাংলাদেশকে এগিয়ে নেওয়ার জন্য পুনরায় শপথ নেন। বক্তারা বঙ্গবন্ধু ও দেশের বিরুদ্ধে অপচেষ্টাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করারও আহ্বান জানান।

Check Also

বিসিএসের জন্যই চ্যাম্পিয়নস লিগ ত্যাগ করলেন মেসি-রোনালদো

আগের রাতে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো এবং পরের রাতে লিওনেল মেসির চ্যাম্পিয়নস লিগ থেকে বিদায়। রাতারাতি এমন …